প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনাভাইরাসে নিউইয়র্কে বাংলাদেশি মুয়াজ্জিনের মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট : [২] নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারালেন আরও এক প্রবাসী বাংলাদেশি। ২৭ মার্চ দেশটির কুইন্সের এলমহার্স্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। জানা গেছে, করোনায় মৃত্যুবরণকারী জ্যাকসন হাইটসের খাবার বাড়ির মসজিদের মুয়াজ্জিন ছিলেন। তিনি বাবুল ভাই নামেই কমিউনিটিতে বেশি পরিচিত ছিলেন।

[৩] উল্লেখ্য, গত ১৩ মার্চ (শুক্রবার) জ্যাকসন হাইটস মসজিদে শেষ জুম্মার আজান ও বক্তব্য দিয়েছিলেন তিনি। তখন তিনি বলেছিলেন, ‘আমাদের অনেক ভাই করোনায় আক্রান্ত, সবার জন্য দোয়া করি। এই মহামারি থেকে রক্ষা পেতে সবাই নিজ নিজ গৃহে থেকে ইবাদত করবো। আর সেই ভয়ঙ্কর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিজেই মারা গেলেন বাঙালি কমিউনিটির সবার প্রিয় ‘বাবুল ভাই’। এ নিয়ে নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত ১০ বাংলাদেশির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে৷

[৪] প্রতিদিন তাতে হাজারো মানুষ মারা যাচ্ছে কিংবা আক্রান্ত হচ্ছে। বৈশ্বিক এই মহামারি সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে প্রথম, দ্বিতীয় কিংবা তৃতীয়; সব সারির দেশ। সর্বশেষ হিসাব বলছে, করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা ২৫ হাজার ছাড়িয়েছে আর আক্রান্ত সাড়ে ৫ লাখের বেশি। চীনে প্রাদুর্ভাব শুরু হলেও ভাইরাসটিতে সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। সংখ্যাটা ৮৫ হাজার ৯০৬। সেখানে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৩০৭ জনের। এদিকে সর্বোচ্চ ৮ হাজার ২১৫ মৃত্যু নিয়ে সবার উপরের স্থানটি ইতালির। সেখানেও আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

[৫]করোনায় যখন গোটা বিশ্ব বিপর্যস্ত তখন কম আর বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকা দিয়ে লাভ কি। তবুও ইতালির মতো অবস্থা দাঁড়িয়েছে স্পেনের। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭৬৯ জন মৃত্যুর মিছিলে যুক্ত হয়েছেন। দেশটিতে করোনায় মোট প্রাণহানির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৮৫৮ জনে।

[৬]করোনায় প্রাণহানিতে চীনকে ছাড়িয়ে গেছে ইতালি এবং স্পেন। বৃহস্পতিবার স্পেনে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর ঘোষণা দেয়া হয়েছে। লকডাউন চলছে ইতালিতেও। তবুও লাশের লাইন ছোট হচ্ছে না। ফ্রান্সেও চলছে লকডাউন। গত একদিনে সেখানে ৩৬৫ জনের মৃত্যুর পর সংখ্যাটা এখন ১ হাজার ৬৯৬। সূত্র- জাগোনিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত