প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] গ্রাম্য পুলিশে গোপন নিয়োগের অভিযোগ স্বরূপকাঠী ইউএনও’র বিরুদ্ধে

পিরোজপুর থেকে ফিরে বিপ্লব বিশ্বাস : [২] পিরোজপুরের স্বরূপকাঠীতে গোপনে গ্রাম্য পুলিশ নিয়োগের অভিযোগ উঠেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার আব্দুল্লা মামুন বাবুর বিরুদ্ধে। গতকাল উপজেলার গুয়ারেখা ইউপির চেয়ারম্যান বাবু সুব্রত ঠাকুর তার ইউপিতে গ্রাম্য পুলিশ (চৌকিদার) নিয়োগে অনিয়ম সেচ্ছাচারীতার অভিযোগ করেছেন।

[৩] তিনি অভিযোগ করেন, সরকারি প্রজ্ঞাপনের তোয়াক্কা না করে ইউএনও তার অনুসারি যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা, ব্যানবেইজ অফিসারসহ কয়েকজনকে নিয়ে ব্যানবেইজ অফিসে গোপনে চৌকিদার নিয়োগের পরীক্ষা নেন যা আমার অভিযোগের পর ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে। নিয়োগ পরিক্ষাটি উপজেলা অডিটরিয়ামে হওয়ার কথা থাকলেও পরিক্ষা গ্রহন করেছেন ব্যানবেইজ অফিসে, প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ৫ সদস্যের নিয়োগ বোর্ডের সভাপতি ইউএনও, সদস্য থানা ইনচার্জ, থানা প্রকৌশলী, আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা ও স্ব স্ব ইউপির চেয়ারম্যান কিন্তু এই ইউএনও নিয়োগ বোর্ডের কোনো সদস্যকে না জানিয়ে নিজস্ব লোক নিয়ে ইচ্ছে অনুযায়ী নিয়োগ পরিক্ষা সম্পন্য করেছেন।

[৪] এব্যাপারে থানা প্রকৌশলী মীর আলী সাকির বলেন, সম্প্রতী চৌকিদার নিয়োগ পরিক্ষার বোর্ডে আমি ছিলাম না।

[৫] ওসি নেছারাবাদ কামরুজ্জামান বলেন, চৌকিদার নিয়োগ নিয়ে গন্ডগোল হওয়ার পরে নিয়োগের ব্যাপারে জেনেছি, পরিক্ষার সময় থাকার প্রশ্নই আসে না।

[৬] আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা মমতাজ বেগম বলে, চৌকিদার নিয়োগ সম্পর্কে আমাকে জানানো হয়নি। নিয়োগ পরিক্ষার পরে সুধু কুড়িয়ানা ইপির নিয়োগের ব্যাপারে শুনেছি যা নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলেছি, গুয়ারেখা ইউপির নিয়োগ পরিক্ষা হয়েছে কিনা আমার জানা নাই।

[৭] এবিষয়ে আটঘর কুড়িয়ানা ইউপি চেয়ারম্যান শেখর সিকদার বলেন, নিয়োগ পরিক্ষা গোপনে নিয়ম বহিঃর্ভূত ভাবে হয়েছে। শুরুতে আমার ইউপির চৌকিদার যাকে নিয়োগ করা হয়েছিলো আমি তার সম্পর্কে খারাপ জানতাম পরে লোকজন তাকে ভাল বলেছে কিন্তু সুব্রতর ইউপিতে এ নিয়োগ নিয়ে সমস্যা হয়েছে।

[৮] উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক বলেন, লিখিত পরিক্ষা নিয়েছে কোন কমিটি করেনি। পরে কিভাবে সিগনেচার নিয়েছে জানিনা। এ নিয়োগ পরিক্ষা গোপনে করা হয়েছে এটা সঠিক হয়ছ নি। এব্যাপারে উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা জাহিদ শামিম বলেন, উপজেলা ব্যানবেইজের অফিসে ২ ইউপির চৌকিদার নিয়োগ পরিক্ষা নেয়া হয়েছিল, আমি ব্যানবেইজ কর্মকর্তাসহ অনেকে ছিলাম কিন্তু ওসি, থানা প্রকৌশলী, আনসার কর্মকর্তা ও ইউনিয়ন, উপজেলার কোন চেয়ারম্যান ছিলেন না। এসব অভিযোগের বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার আব্দুল্লাহ্ বাবু মামুনের ০১৭১৯৭৫৩৬৩৮ সরকারি নম্বরে যোগাযোগ করা হলে তিনি মোবাইল ফরোয়ার্ড করে রাখেন।

সর্বাধিক পঠিত