প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যশোর থেকে নিখোঁজ ছাপ্পানের গুলিবিদ্ধ লাশ নড়াইল থেকে উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক : [২] যশোর উপশহর থেকে নিখোঁজ ছাপ্পানের (৪৫) লাশ যশোর নড়াইল সড়কের তুলারামপুর ব্রিজের নীচ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত ছাপ্পান উপশহর বি ব্ল ১৪৭ নম্বর বাড়ির মৃত ওমর মাস্টারের ছেলে।

[৩] নিহত ছাপ্পানের ভাই পাপ্পু জানান, সোমবার (২ মার্চ) রাতে কোতয়ালি থানা পুলিশের একটি টিম ছাপ্পানকে উপশহর ডি ব্লক জামে মসজিদের সামনে নান্নুর ফার্নিচারের দোকান থেকে আটক করে। টিমের নেতৃত্বে ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানি। এরপর থেকে ছাপ্পানের আর কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তারা খবর পান তুলারামপুর ব্রিজের পাশে পড়ে থাকা ছাপ্পানের লাশ নড়াইল সদর থানা পুলিশ উদ্ধার করে। এর আগে কোতয়ালি পুলিশ ছাপ্পানকে আটকের জন্য তার উপশহরের বাড়িতে অভিযান চালায়। ছাপ্পানকে আটকের আগে পুলিশ ওই রাতে বিরামপুর ভাটাপাড়া থেকে ইসমাইল মন্ডল নামে এক যুবককে একটি ৭ পয়েন্ট ৬৫ পিস্তল ২ টি ম্যাগজিন ও ৬ রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করা হয়। গ্রেতারকৃত ইসমাইল ভাটাপাড়ার মুদি দোকানি খালেকের বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত ইশারত মন্ডলের ছেলে। উপশহর ফাঁড়ি পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ইসমাইলকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ইসমাইল পুলিশকে জানায়, ছাপ্পান তার কাছে অস্ত্র গুলি ও ম্যাজিন রেখে যায়। এরপর পুলিশ ছাপ্পানকে আটকের জন্য অভিযান চালায়। অস্ত্র, গুলি ও ম্যাগজিন উদ্ধারের ঘটনায় কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে।

[৪] নড়াইল সদর থানার ওসি ইলিয়াছ হোসেন জানান, মঙ্গলবার সকালে তুলারামপুর ব্রীজের পাশ থেকে মাথায় গুলিবিদ্ধ অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। এলাকাবাসি ব্রীজের পাশে লাশ পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দিলে পুলিশ তা উদ্ধার করে। পরে লাশের পরিচয় জানা যায়। নিহত যুবকের নাম ছাপ্পান। বাড়ি যশোরে। নড়াইল সদর হাসপাতালে ছাপ্পানের লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত