প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সম্প্রীতির মনোভাব নিয়ে পাশাপাশি বসে ছিলেন সকল দলের মেয়র পদে মনোনয়ন প্রার্থীরা

রাজু চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: [২] আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বাছাই কার্যক্রম রোববার (১ মার্চ) সকালে নগরের চট্টগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও চসিক নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মুহাম্মদ হাসানুজ্জামানসহ নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

[৩] ৯জন মেয়র প্রার্থীর মধ্যে ৭ জনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগের এম রেজাউল করিম চৌধুরী, বিএনপির ডা. শাহাদাত হোসেন, জাতীয় পার্টির সোলায়মান আলম শেঠ, ইসলামী ফ্রন্টের আল্লামা এম এ মতিন, ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের মুহাম্মদ ওয়াহেদ মুরাদ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. জান্নাতুল ইসলাম ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আবুল মনজুর। মনোনয়নপত্র বাছাই কার্যক্রম চলাকালীন সম্প্রীতির মনোভাব নিয়ে পাশাপাশি বসে ছিলেন সকল দলের মেয়র পদপ্রার্থীরা।

[৪] বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বিএনপি এবং জাতীয় পার্টি সহ অন্যান্য দলের প্রার্থীরা একই সাথে পাশাপাশি বসে মনোনয়ন বাছাই কার্যক্রম লক্ষ্য করছিলেন। রাজনৈতিক অঙ্গনে বৈরিতা এবং বিরোধিতা থাকলেও এই দিন তারা সম্প্রীতির মনোভাব পোষণ করেছেন, এইটা রাজনীতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি দিক।

[৫] নগরবাসীও আশান্বিত যে আসন্ন সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচনে পারস্পরিক সুসম্পর্ক বজায় রেখে সুষ্ঠু একটি নির্বাচন উপহার দেবেন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৮ মার্চ প্রার্থিতা প্রত্যাহার, পরদিন ৯ মার্চ প্রতীক বরাদ্দ এবং ২৯ মার্চ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত