প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারতে টুইটারে ছড়ানো হলো বোমাতঙ্ক, তল্লাশি চালিয়ে পাওয়া গেলো না কিছুই

ইয়াসিন আরাফাত : [২] সঞ্জীব সিং গুর্জার নামে এক ব্যাক্তি তার টুইট বার্তায় লেখেন, ‘রাজধানীতে পাঁচটি বোমা আছে। ট্রেনটা দিল্লি থেকে কানপুর সেন্ট্রালের দিকে যাচ্ছে। দয়া করে দ্রুত কোনও ব্যবস্থা নিন।’ এই লিখে দেশটির রেল মন্ত্রণালয়, পীযূষ গোয়েল, দিল্লি পুলিশ ও আইআরসিটিসি-কে ট্যাগ করেন। কোলকাতা ২৪, এই সময়, আনন্দবাজার

[৩] প্রতিদিনের মত শুক্রবারও ভারতের রাজধানী দিল্লি থেকে ডিব্রুগড়ের দিকে যাচ্ছিলো দেশটির অন্যতম ব্যাস্ত ট্রেন রাজধানী এক্সপ্রেস।এদিন বিকেল ৪-১০ মিনিটে দিল্লি থেকে ছাড়ে ট্রেনটি। পরদিন ভোর ৭টার সময় নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছনোর কথা ছিল রাজধানী এক্সপ্রেসের। ট্রেন ছাড়ার পরপরই ৪.১২ মিনিটে ট্যুইট করেন সঞ্জীব।
[৪] সেই টুইটকে গুরুত্ব দিয়ে, দাদরিতে ট্রেনটিকে থামিয়ে দেয়া হয়।সেখানে গর্ভমেন্ট রেলওয়ে পুলিশ (জিআরপি) ও রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স (আরপিএফ)-এর যৌথ একটি টিম বোমার খোঁজে তল্লাশি চালায় ট্রেনের প্রতিটি কামরা। অজানা আশঙ্কায় যাত্রীদের মধ্যে প্রবল আতঙ্কও তৈরি হয়।

[৫] আদ্যোপান্ত প্রতিটি কামরায় তল্লাশি চালিয়েও বোমা তো দূরের কথা সন্দেহজনক কোনও কিছুই মেলেনি ট্রেনটিতে। উলটে গুজবের ঠেলায় নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছতে দেরি হয় রাজধানী এক্সপ্রেসের।

[৬] ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ জানায়, রাজধানী এক্সপ্রেসের কামরায় বোমা থাকার খবর আদতে গুজব।আর অকারণে এ গুজব ছড়িয়ে রেলেকে ব্যতিব্যস্ত করার কারণে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত আইনি পদক্ষেপ করা হবে।

[৭] এর কিছুক্ষন পরেই ওই যাত্রী দ্বিতীয় ট্যুইটটি করেন। সন্ধে ৭-১৬ মিনিটে হিন্দিতে তিনি লেখেন, মানসিক অবসাদ থেকেই তিনি এই টুইটটি করেছিলেন। কারণ হিসেবে তিনি জানান, তার ভাইয়ের ট্রেনটি ৪ ঘণ্টা দেরিতে আসছে। তা জেনে প্রচণ্ড রাগ হয় তার। ভিতরের সেই রাগ থেকে তিনি বোমার গুজব ছড়ান। নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমাও চেয়ে নেন। দ্বিতীয় ট্যুইটে তিনি ট্যাগ করেন রেলমন্ত্রীক ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েলকে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত