প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভ্যলেনটাইনে কফি আড্ডায় ভার্চুয়াল আড্ডা

ডেস্ক রিপোর্ট : বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ভার্চুয়াল আড্ডা। ভার্চুয়াল দুনিয়ায় বন্ধু খুঁজে তার সঙ্গে আড্ডা দিতে পছন্দ করেন। ভার্চুয়াল যোগাযোগের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন নির্মাতা এমসিসি লিমিটেডের তৈরি কফি আড্ডা অ্যাপ্লিকেশনটি। এর মাধ্যমে ভার্চুয়াল যোগাযোগের পাশাপাশি বন্ধু তৈরি করা যায়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বা প্ল্যাটফর্ম হিসেবে এতে নিবন্ধন করে প্রোফাইল ছবি ও নিজের সম্পর্কে তথ্য দিতে হয়। যুগান্তর

এমসিসির প্রধান প্রকৌশলী আশিকুজ্জামান বলেন, বিশ্বব্যাপী ভার্চুয়াল যোগাযোগ এখন জনপ্রিয়। বাংলাদেশেও জনপ্রিয় অ্যাপ হিসেবে কফি আড্ডা পরিচিত হয়ে উঠেছে। অ্যাপের অ্যালগরিদম স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যবহারকারীর পছন্দ অনুযায়ী সম্ভাব্য বন্ধুদের প্রোফাইল দেখায়। ফলে সহজে বৈশিষ্ট্যের দিক থেকে মিল থাকা বন্ধু খুঁজে পাওয়া যায়। বন্ধু হলে কেবল এতে আলাপ বা আড্ডা দেওয়ার সুযোগ রয়েছে। দেশের তরুণদের মধ্যে ইতিমধ্যে এ অ্যাপ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

অ্যাপটিতে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ফিচার। এর মধ্যে একটি হচ্ছে সঠিক ম্যাচ। প্রোফাইলের উপর ডানদিকে সোয়াইপ করার অর্থ- সেই প্রোফাইলে অধিকারীকে বার্তা পাঠানো যে, আপনাকে আমার বন্ধু হিসেবে পেতে আগ্রহী। অপর পক্ষ যদি সেই আহ্বানে সাড়া দেন, তবে কফি আডছার ভাষায় সেটাকে বলে ‘ম্যাচ’ করা। শুধুমাত্র ম্যাচ করলেই ব্যবহারকারীরা পরস্পরের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন।

অ্যাপটির গুরুত্বপূর্ণ আরেকটি ফিচার হচ্ছে এর নিরাপত্তা। এ অ্যাপ ব্যবহারে অনিচ্ছুক সম্পর্কের বিপত্তি ঘটার আশঙ্কা নেই। মানুষের সঙ্গে ঠিকমতো ম্যাচ হলে তবেই সম্পর্ক তৈরি করা যায়। এ ছাড়া এতে তথ্য সম্পূর্ণ নিরাপদ থাকে।

কফি আড্ডার ব্যবহারকারীদের বেশির ভাগই তরুণ। কফি আড্ডার তথ্য অনুযায়ী, অনূর্ধ্ব ২৫ বছর বয়সীরা অ্যাপটি বেশি ব্যবহার করছেন।

আশিকুজ্জামান আরও বলেন, প্রতিদিন কফি আড্ডায় কয়েক লাখ বার্তা আদানপ্রদান করা হচ্ছে এখন। এ বছর ভ্যালেন্টাইন ডে উপলক্ষে কফি আড্ডা ব্যবহারকারীদের জন্য রাহিতুল ইসলামের উপন্যাস চরের মাস্টার কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার নামের ভালোবাসার উপন্যাসটি উপহার দেওয়া হবে। এ ছাড়া সোয়াইপ করতে করতে এর ব্যবহারকারীরা এমন কোন প্রোফাইল পেয়ে যেতে পারেন, যেখানে ক্রিমসম কাপের সঙ্গে ম্যাচ করতে বলা হয়েছে। পারফেক্ট ম্যাচ হলে বন্ধুর সাথে আলাপকালে পাওয়া যাবে বিনামূল্যে কফি পানের সুযোগ।

বিনা মূল্যের অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাবে এই ঠিকানা থেকে।

সর্বাধিক পঠিত