প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পুলিশী হামলার প্রতিবাদে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

ইসমাঈল হুসাইন ইমু: বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) দুই সদস্যকে পুলিশ কর্তৃক মোটরসাইকেল চাপা দেয়ার পর অসৌজন্যমূলক আচরণ ও পিষে ফেলার হুমকি এবং এক সদস্যকে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন সাংবাদিকরা। বুধবার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ক্র্যাব কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেন সাংবাদিকরা।

গত সোমবার পরীবাগ এলাকায় বাংলা ট্রিবিউনের ক্রাইম রিপোর্টার শেখ জাহাঙ্গীর আলম ও আলোকিত বাংলাদেশের স্টাফ রিপোর্টার সাজ্জাদ মাহমুদ খানকে মোটরসাইকেল চাপা দেয় পুলিশ। এরপর সাংবাদিকদ্বয়ের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ এবং মেরে ফেলারও হুমকি দেয়। এর কয়েক দিন আগে বাংলানিউজের সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট আসাদুজ্জামান শিমুলকে রড দিয়ে পেটায় সন্ত্রাসীরা। এই দুই ঘটনার প্রতিবাদে সমাবেশটির আয়োজন করে ক্র্যাব।

দুই সাংবাদিককে হেনস্তার বিষয়ে ক্র্যাবের সভাপতি আবুল খায়ের বলেন, পুলিশের কাজ জনগণের সেবা করা। অথচ এক পুলিশ কর্মকর্তা উল্টোপথে এসে দুই সাংবাদিককে চাপা দেয়। প্রতিবাদ করলে তাদের গালমন্দ করে এবং মেরে চলে যায়। এই হলো পুলিশের আচরণ। তাদের আচরণ দেখে আমি অবাক। তারপরও যে মোটরসাইকেল দিয়ে চাপা দিয়েছে সেটির নম্বর প্লেটও ভুয়া, এটা আরো বড় ধরনের ক্রাইম। আমরা এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি এই ঘটনাটির জন্য একজনকে অ্যাসাইন করেছেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা জানি স্বাধীনতার সময় রাজারবাগে প্রথম রাইফেল হাতে প্রতিরোধ গড়েছিল পুলিশ বাহিনী। অথচ কয়েকজন সদস্যের জন্য গোটা বাহিনীর গৌরব নষ্ট হচ্ছে, জনগণের কাছে তাদের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। আমি আহ্বান জানাব আপনারা এইসব সন্ত্রাসীর মতো আচরণকারী পুলিশ সদস্যদের চিহ্নিত করে বের করে দেন। প্রতিবাদ সমাবেশ পরিচালনা করেন ক্র্যাবের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বিকু। এ সময় ক্র্যাব সেতৃবৃন্দ ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বাধিক পঠিত