প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নিয়মিত হাঁটার উপকারিতা

নিউজ ডেস্ক : ভালো থাকার জন্য নিয়মিত একটু হলেও শারীরিক পরিশ্রম ছাড়াও সহজেই সুস্থ থাকা যায় । হাঁটা এমন একটা ব্যয়াম যা সব বয়সের জন্যই চলে। এর উপকারিতা ও অনেক । নিয়মিত হেঁটেই নিজেকে সুস্থ রাখতে পারেন। সময়টিভি

হাঁটতে গেলে প্রথমেই যে ভাবনাটা আসে সেটা হলো অপনি কখন হাঁটবেন ? চিকিৎসকেরা বলছেন, যেকোনো সময়েই হাঁটতে পারেন। ২৪ ঘন্টার মধ্যে যখন আপনি হাঁটার জন্য যখন সময় বের করতে পারবেন , তখনই হাঁটবেন । তবে হাঁটার জন্য সবচেয়ে ভালো সময় বিকেল । যারা সকালে হাঁটতে যান ,তাদেও জন্য পরামর্শ ,ঘুম থেকে উঠেই হাঁটতে যাওয়া ঠিক নয়। ঘুম থেকে উঠে কমপক্ষে ৩০ মিনেট পর হাঁটতে বের হওয়া উচিত ।এবং কমপক্ষে ৩০ মিনিট হাঁটা উচিত। তবে আপনি চাইলে প্রতিদিন না হেঁটে সপ্তাহে পাঁচদিন ৩০ মিনিট করে ১৫০ হাঁটলেও সুস্থ থাকবেন । একজন মানুসের সপ্তাহে ১৫০ মিনিট হাঁটা জরুরী। শারীরিক অবস্থা ভালো থাকলে অরো বেমি সময় ধরে আপনি হাঁটতে পারেন । তবে ৩০ মিনিটের কম হাঁটা উচিত নয়।

১. নিয়মিত হাঁটলে ভালো ঘুমে সাহায্যে করে ,
২. হাড় ও পেশি মজবুত কওে,
৩. ১৫ মিনিট হাঁটলে ৫৬ ক্যালোরি শক্তি খরচ হয়,্রজন কমে
৪. সৃজনশীল চিন্তা করতে সাহায্যে কওে,
৫. মানসিক চাপ ,উদ্বেগ ও টেনশন দূর কওে শরীর মন প্রাণবন্ত রাখে,
৬. রোগ প্রতিরোগ সাহায্যে করে,
৭. ধমনির চাপ কমিয়ে হৃদরোগ প্রতিহত করে,
৮ স্মৃতিশক্তি বাড়ায়,
খাওয়ার আগে বা খাওয়া শেষ করেই হাঁটা উচিত নয়। যারা সকাল বিকাল বা সন্ধ্যার পর হাঁটতে সময় পান না, তারা তিন বেরা খাওয়ার পর ১০ সিনিট করে হাঁটতে পারেন । হাঁটার গতি মাঝারি থাকা উচিত । অনুলিখন : সানজীদা

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত