প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডেঙ্গু রোগীদের পুষ্টিকর খাবার খাওয়াতে হবে

তন্নীমা আক্তার : ডেঙ্গু বর্তমান সময়ের সবচেয়ে পীড়াদায়ক রোগের একটি। এই জ্বরে আক্রান্ত একদিকে যেমন দুর্বল হয়ে পড়ে অন্যদিকে এর রেশ শরীরে থেকে যায় দীর্ঘদিন। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে বিশ্রাম ও নিয়মমাফিক চললে এ থেকে পুরোপুরি মুক্তি পাওয়া সম্ভব। সঠিক ওষুধপত্র এবং খাওয়াদাওয়াতেই একজন ডেঙ্গু রোগী সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠতে পারেন। সংবাদ প্রতিদিন

ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর দ্রুত প্লেটিলেট কমতে থাকে। তার ফলে স্বাভাবিকভাবেই খুব তাড়াতাড়ি ওই রোগীর ওঠার ক্ষমতাও কমতে থাকে। তাই ডেঙ্গু আক্রান্তকে সবসময় পুষ্টিগুণে ভরা খাবারদাবার খাওয়াতে হবে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে দু-তিনটি পেঁপে পাতার রস খেলে খুব কমদিনেই ডেঙ্গু রোগী সেরে উঠতে পারেন। এতে মুখে রুচি যেমন ফিরবে, তেমনই আবার প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়াবে পেঁপে পাতার রস।

যেকোনও ডেঙ্গু রোগীর রক্তচাপ কমে যাওয়া স্বাভাবিক। তাই তার রক্তচাপ স্বাভাবিক করার জন্য দুধ খাওয়াতে হবে। তবে এই সময় গরুর পরিবর্তে ছাগলের দুধ খাওয়ানোই শ্রেয়।

ডেঙ্গুর ভাইরাসকে শরীর থেকে তাড়াতে চিকিৎসকরা এই সময় রোগীদের অনেক বেশি পানি খাওয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু অনবরত জল খেলে বমি হতে পারে রোগীদের। তবে তাতে ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। রোগী শুধু পানি না খেতে পারলে তাকে বারবার একটু করে ডাবের কিংবা লেবুর পানি দিতে পারেন। খাওয়াতে পারেন লাচ্ছিও।

শরীরে আবারো প্লেটলেটের সংখ্যা বাড়ানোর জন্য রোগীকে খাওয়ান সবুজ শাকসবজি এবং বাদাম।

এই সময় শরীরে আয়রনেরও ঘাটতি লক্ষ্য করা যায়। তাই রোগীকে বেশি করে পেয়ারা, আমলকি, কাজু বাদাম, আখরোট, কিসমিস খাওয়াতে পারেন।
শরীরে ভিটামিন ডি এবং কে’র অনুপাত ঠিক রাখার জন্য ডেঙ্গু রোগীকে খাওয়াতে পারেন ডিমের কুসুমও। সম্পাদনা : সালেহ্ বিপ্লব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত