প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বহুমাত্রিক সহযোগিতার মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও এগিয়ে যাবে, বললেন প্রধানমন্ত্রী

মহসীন কবির : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার নয়াদিল্লির হায়দ্রাবাদ হাউজে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিগত এক দশকে দুদেশের মধ্যে শিক্ষা স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন খাতে উন্নয়ন হয়েছে। সময় টিভি, বিডিনিউজ ও বাংলানিউজ

শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার এ সম্পর্কের শুভ সূচনা হয়েছিল ১৯৭১ সালে। মুক্তিযুদ্ধে ভারতের জনগণ ও সরকারের অপরিসীম অবদানের কথা আমরা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করি। আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে তা মাইলফলক হয়ে থাকবে।উদ্বোধনী বক্তেব্যের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে ভারতে আমন্ত্রণের জন্য নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানান।

বৈঠকে শিক্ষা, সংস্কৃতি ও পানিসম্পদ বিষয়ে ৬টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। তিনটি প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছে।ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যৌথভাবে খুলনায় অবস্থিত ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইনজিনিয়ার্সে বাংলাদেশ-ভারত প্রফেশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট (বিআইপিএসডি); রামকৃষ্ণ মিশন, ঢাকায় বিবেকানন্দ ভবন উদ্বোধন ও বাংলাদেশ থেকে ত্রিপুরায় এলপিজি আমদানি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন দুই প্রধানমন্ত্রী। নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, বিদ্যমান সম্পর্ক দু’দেশের মানুষদের জীবনমান উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে। যমুনা টিভি ও বাংলানিউজ

এর আগে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে ভারত ‘সর্বোচ্চ গুরুত্ব’ দেয় বলে জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। শনিবার শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদী দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে যান ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। পারস্পরিক সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় নিতে এই সাক্ষাতে উষ্ণ আলোচনা হয়েছে জানিয়ে টুইট করেছেন ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভীশ কুমার। তিনি লিখেছেন, ভারত যে প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে ‘সর্বোচ্চ গুরুত্ব’ দেয়, তা তুলে ধরেছেন জয়শঙ্কর।

টানা তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর এটাই শেখ হাসিনার প্রথম ভারত সফর। নরেন্দ্র মোদীও টানা দ্বিতীয় মেয়াদে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত