প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঈদের দিন খিচুড়ি রেঁধে মায়ের অপেক্ষায় থেকে কাঁদছে তুবা

শেখ নাঈমা জাবীন : রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে গণপিটুনিতে হত্যার শিকার তাসলিমা বেগম রেনুর ছোট্ট মেয়ে তাসমিন মাহিরা তুবা ঈদ করেছে মাকে ছাড়াই। চার বছর বয়সী তুবা ঈদের দিন মায়ের জন্য খেলনা পাতিলে খিচুড়ি রেঁধে মায়ের অপেক্ষায় প্রহর গুণে এবং মা না আসায় কান্না করেছে বারে বারে। তুবার চোখের পানিতে বুক ভিজেছে তার স্বজনদেরও। যুগান্তর

এবারই প্রথম ঈদে মায়ের স্নেহ বঞ্চিত হয়েছে সে। ছোট্ট শিশুটি মায়ের মৃত্যুর খবর এখনও জানে না। সে জানে মা যুক্তরাষ্ট্র গেছে। সেখান থেকে তার জন্য খেলনা ও চকলেট নিয়ে আসবে। তাই ঈদের দিনে খেলনা বাটিতে খিচুড়ি রান্না করে মায়ের জন্য অপেক্ষা করেছে সারাদিন । খেলনা ফোনটা কানে দিয়ে মায়ের সঙ্গে একা একাই কথা বলে তুবা।

ছোট্ট তুবাকে ভর্তির জন্য বাড্ডার একটি স্কুলে খোঁজ নিতে গিয়েই ২১ জুলাই ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন তাসলিমা বেগম রেনু (৪০)। রোববার লক্ষ্মীপুরের রায়পুরার সোনাপুর গ্রামে তার দাফন হয়েছে। মায়ের মৃত্যুর বিষয়টি ঠিকই টের পেয়েছে তাহসিন। কিন্তু নাছোড়বান্দা তুবা। মায়ের কথা মনে পড়লেই ঢুকরে কাঁদছে। সম্পাদনা : রাশিদ রিয়াজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত