প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যুক্তরাষ্ট্রে নারী ফুটবল বিশ্বকাপের ফাইনাল দেখেছেন ২ কোটি দর্শক, পুরুষ বিশ্বকাপের তুলনায় ২২ শতাংশ বেশি

আক্তারুজ্জামান : গত রোববারে শেষ হওয়া ২০১৯ নারীদের বিশ্বকাপ ফুটবল ফাইনালে বিপ্লব ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের দর্শক সংখ্যায়। ২০১৮ পুরুষদের বিশ্বকাপ ফাইনালের চেয়েও বেশি দর্শক দেখেছে নারী বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচটি। এর আগে একসাথে কখনোই এতো বেশি মার্কিন দর্শক টিভি পর্দায় নারীদের ফুটবল ম্যাচ দেখেনি। দেশটির সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে পুরুষ ফুটবলের চেয়ে নারীদের ফুটবলে ফাইনাল ম্যাচে ২২ শতাংশ বেশি দর্শক ছিলো। সূত্র : সিএনবিসি।

ফ্রান্সের পার্ক অলিম্পিক লিওনেস স্টেডিয়ামে প্রায় ৬০ হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে নেদারল্যান্ডকে ২-০ গোলে হারিয়ে চতুর্থবারের মতো শিরোপা জিতেছিলো যুক্তরাষ্ট্রের নারী দল। কিন্তু ওই ম্যাচ যুক্তরাষ্ট্রের ১ কোটি ৪৩ লাখ মানুষ টেলিভিশনে দেখেছিলো। যা ২০১৮ পুরুষ বিশ্বকাপ ফাইনালের চেয়ে ৩০ লাখ বেশি। গত বছর ফ্রান্স-ক্রোয়েশিয়া পুরুষদের ফুটবল ফাইনালে টেলিভিশন দর্শক ছিলো ১ কোটি ১৪ লাখ।

ফক্স স্পোর্টসের বরাত দিয়ে সিএনবিসি বলেছে, টেলিভিশন এবং অনলাইন স্ট্রিমিং মিলিয়ে নারীদের ফাইনাল ম্যাচের দিন যুক্তরাষ্ট্রের মোট দর্শক ছিলো ২ কোটি। আর ওইদিনই ২০১৫ সালের পর সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ টেলিভিশনে ইংরেজি ভাষায় ফুটবল ম্যাচ দেখেছে। ২০১৫ সালে মার্কিন দর্শক সংখ্যা ছিলো পরিমাণ আড়াই কোটিরও বেশি ছিলো। সিএনএন বলছে ইংরেজি ছাড়াও নারী ফুটবলের ফাইনাল ম্যাচটি স্প্যানিশ ভাষায় প্রায় ১৬ লাখ মানুষ দেখেছে।

আরও আশ্চর্যের বিষয় আছে। যেদিন রাতে যুক্তরাষ্ট্রের নারী ফুটবল বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলতে মাঠে নেমেছিলো। সেদিনই পুরুষ ফুটবলের দুটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। ব্রাজিল-পেরুর মধ্যেকার কোপা আমেরিকার ফাইনাল এবং কনকাফ টুর্নামেন্টের ফাইনাল। ওই দুটি আসরকে হটিয়ে তাই দর্শক টানায় শীর্ষে ছিলো নারীদের টুর্নামেন্ট।

ফক্স স্পোর্টস তাদের সম্প্রচারের প্রতি মিনিটেরও একটি গড় হিসাব বের করে দেখিয়েছে। তাদের হিসাবে প্রতি মিনিটে ২ লাখ ৮৯ হাজার দর্শক ম্যাচটি দেখেছেন। যা ২০১৫ বিশ্বকাপের চেয়ে ৪০২ শতাংশ বেশি। ফক্স স্পোর্টস আরও জানিয়েছে, এবারের আসরের ফাইনালে ১ কোটি ৭৮ লাখ মানুষ সামাজিক মাধ্যমে (ফেসবুক, টুইটার ও ইউটিউব) ম্যাচটি দেখেছে। যা ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালের চেয়েও ১৮ শতাংশ বেশি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত