প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হুমায়ূন আহমেদের ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী স্মরণে নাটক প্রদর্শনী

রেন্টিনা চাকমা : জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী স্মরণে আগামী ১৩ জুলাই শিল্পকলা থিয়েটার একাডেমীতে ‘নদ্দিউ নতিম’ নাটকটি বিশেষভাবে প্রদর্শিত হবে। সন্ধ্যা ৭ টায় নাটকের প্রদর্শন শুরু হবে।হুমায়ূন আহমেদের কালজয়ী উপন্যাস ‘কে কথা কয়’ এর নাট্যরূপ ‘নদ্দিউ নতিম’। এটি ম্যাড থেটারের প্রথম প্রযোজনা। রচনা ও নির্দেশনায় আসাদুল ইসলাম। যিনি ম্যাড থেটারের হেড ম্যাড। অভিনয় করেছেন আসাদুল ইসলাম, সোনিয়া হাসান ওআর্য মেঘদূত। যারা একই পরিবারের সদস্য।এবার নাটকটি ৫৩ তম মঞ্চায়ন পূর্ণ হবে ।

নাটকের কাহিনী সংক্ষেপঃ মতিন একজন কবি। যে নিজেকে মনে করে একজন উজবেক কবি।স্বপ্নে দেখে ফর্সা গায়ের রং, জোব্বার মত একটি পোশাক, তীক্ষè চোখ। যার মধ্যে বাস করে অন্য এক মতিন। সে হল নদ্দিউ নতিম। মতিনের হৃদয় জুড়ে বাস করে সহপাঠিনী নিশু। তবে ভাবের জালে হারিয়ে যায়না মতিন। কারন মতিন জানে, একজন স্কলার নারীর যোগ্য সে নয়। একদিন পত্রিকায় মতিনের নজরে পড়ে আকর্ষণীয় বেতনের টিউটরের বিজ্ঞাপন । তাই সে কবিসত্তাকে স্তিমিত রেখে কমল নামের একজন মানসিক প্রতিবন্ধী বাচ্চার টিউটর পদে অভিসিক্ত হয়। মতিনের কর্মকাণ্ডে অসন্তোষ  সৃষ্টি হওয়াতে টিউটর পদ থেকে বরখাস্ত করা হয়। কিন্তু প্রতিবন্ধী বাচ্চাটি কবিকে ভুলে না। কবির সাথে কথা বলতে চায়। কিন্তু কবি চলে যাওয়াতে সে সুযোগ আর হয় না। বাচ্চাটি তারপরও জেদ ধরে সে কথা বলবেই ।একদিন সুযোগ হয়ে যায় কথা বলার। কমল সেদিন মতিনের কাছে জীবনের এক গোপন তথ্য ভাগাভাগি করে। যার জন্য মতিনকে মৃত্যু সন্ধিক্ষণে এসে দাঁড়াতে হয়।

কি সেই গোপন তথ্য যে কারনণ কবিকে জীবন দিতে হল? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজবে “নদ্দিউ নতিম “ ।

নাটকটি ইতিমধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। দর্শকদেরও আকৃষ্ট করেছে অভিনয় গুণ, ঘটনার বিন্যাস ও চরিত্রের বিচিত্রতায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত