প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বগুড়ায় টুপি তৈরিতে যুক্ত ১ লাখ নারী, বিদেশেও রপ্তানি জালিটুপি

হ্যাপি আক্তার : ঈদে দেশের বাজারের পাশাপাশি বিদেশেও রপ্তানি হচ্ছে বগুড়ার জালিটুপি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সরকারি সহায়তা ও প্রশিক্ষণ পেলে ক্ষুদ্র এই শিল্প থেকেও সম্ভব বড় অঙ্কের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন। এরই মধ্যে বগুড়ার নারীদের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে কক্সবাজারের বেশ কিছু নারীও শুরু করেছেন টুপি তৈরির কাজ। ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন।

বগুড়ার শেরপুর উপজেলার চককল্যাণী গ্রামে প্রায় ২০ বছর আগে ছোট পরিসরে টুপি তৈরির কাজ শুরু করেন গ্রামীণ নারীরা। লাভ হওয়ায় আশপাশের কয়েকটি গ্রাম ও ধুনট উপজেলার নারীরাও যুক্ত হন এই কাজে। বর্তমানে শেরপুর ও ধুনট উপজেলার প্রায় এক লাখ নারী যুক্ত টুপি তৈরিতে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, দুই ঈদে দুই কোটিসহ প্রতি বছর এ দুই উপজেলায় তৈরি হয় ৩ কোটি টুপি। ঈদে বাড়তি চাহিদা পূরণে মাসখানেক আগে থেকেই শুরু হয় তোড়জোড়। মানভেদে প্রতিটি টুপি তৈরিতে খরচ পড়ে ২৫ থেকে ৪০ টাকা, পাইকারি বাজারে তা বিক্রি হয় ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। আর সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে পাঠালে একেকটি টুপির দাম ওঠে দু’শ থেকে আড়াই’শ টাকা পর্যন্ত।

টুপি তৈরির ব্যবসার প্রসারে সরকারি সহযোগিতা ও প্রশিক্ষণর বিষয়ে উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানালেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে সুতা ও ক্রুসকাটা নিয়ে ঘরে বসেই টুপি তৈরি করেন বগুড়ার নারীরা। এজন্য পান নির্দিষ্ট মজুরি। চাহিদা বেশি থাকায় সারা বছরই জালিটুপি তৈরি করেন তারা। সম্পাদনা : কায়কোবাদ মিলন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত