প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এই পার্লামেন্ট কার স্বার্থ দেখবে?

মাহফুজুর রহমান : আগে ভারত থেকে চাল আমদানিতে এনবিআর ২৭ শতাংশ শুল্ক আরোপ করতো, এখন নানা সমালোচনার মুখে, ধানের বাম্পার ফলন হওয়ার কারণে চাল আমদানি নিরুৎসাহিত করতে (ধোঁকা) সরকার এনবিআরকে ৫৫ শতাংশ শুল্ক আরোপ করার আদেশ দিয়েছে। এখন নানামুখী সমস্যা… ভারত থেকে আমদানি কমে গেলে, দেশীয় সিন্ডিকেটেরা কৃষকের কাছ থেকে (সরকারকে তো ধান চাল না কিনতে বা সীমিত পরিমাণ কিনতে সম্মত করাতে পেরেছেই,) ধান-চালের গুদামে স্টক করে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করবে, যেন মানুষ চালের কৃত্রিম বাজার সংকটে হাহাকার করে, যেন সরকার আবার আগের ২৭ শতাংশ বা আরও কম শুল্কে (সরকারের আয় কমুক আপত্তি নেই) ভারত থেকে চাল আমদানির আদেশ বহাল রাখেন!

তাছাড়া ভারত কি এটা মানবে? নাকি আমেরিকা-চীনের বাণিজ্য যুদ্ধের মতো হবে? সরকারের প্রচুর অর্থ আছে তবে নাকি গুদাম নেই! সরকারকে এই গুদাম বানাইতে নিরুৎসাহিত করলো কে? মিলের মালিক, চাতালের মালিক… এরা কি যাতা লোক? এরা এলাকার রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করে জাতীয় রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করে, এরা নিজেরাও পার্লামেন্টে আইসা গেছে অথবা এদের টাকা খাওয়ারা পার্লামেন্টে আইসা গেছে। এখন এই পার্লামেন্ট কার স্বার্থ দেখবে ওহে বোকা-উকা পাবলিক? মাথায় তোমার ঘিলু আছে নাকি গু? সরকার গুদাম কেন বানাইলো না? সরকারি জায়গা লিজ নিয়া অথবা দখল কইরা সিস্টেম কইরা ব্যাংক লোন নিয়ে তারা গুদাম বানাইলো। কোল্ড স্টোর বানাইলো। এই পার্লামেন্ট কার স্বার্থ দেখবে? ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত