প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফিনেন্সিয়াল টাইমসের প্রতিবেদন
বুথ ফেরত সমীক্ষা ভুল হলে ভারতের রাজনীতির ‘গেম অব থ্রোনস’ জিতবেন আঞ্চলিক নেতারা

লিহান লিমা: ভারতের লোকসভা গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য ও প্রদেশগুলোতে মূল প্রভাব বিস্তার করেন আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা। গণমাধ্যমগুলো বলছে, এক্সিট পোলের সমীক্ষা ভিন্ন হলে, ভারতের পার্লামেন্টের ৫৪৩টি আসনের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে প্রয়োজনীয় ২৭২টি আসন মোদির বিজেপি, নাকি রাহুলের কংগ্রেসের ঝুলিতে যোগ হবে তা মূলত তারাই নির্ধারণ করবেন।

বৃহস্পতিবার ভোটের পর বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আবারও বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন। তবে ব্রেক্সিট গণভোটে ব্রিটেনের রায়, ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হিলারি ক্লিনটনের পরাজয়, জার্মানির বুন্ডেসটার্গে কট্টরপন্থীদের জায়গা করে নেয়াসহ আন্তর্জাতিক বিশ্বের সাম্প্রতিক নির্বাচনগুলোর ফলাফল বুথ সমীক্ষা জরিপ নিয়ে প্রশ্ন এঁকে দিয়েছে। লোকসভা নির্বাচন যদি অঘটন-ঘটন পটিয়সী হয় তবে দিল্লি দখলের চাবিকাঠি চলে যাবে আঞ্চলিক দলগুলোর হাতে।
ভারতের পূর্বাঞ্চলিয় রাজ্য উড়িষ্যায় বিজু জনতা দলের নবীন পট্টনায়কই(৭৩) রাজা। নিম্নকক্ষে উড়িস্যার সদস্য সংখ্যা ২১। মোদি ও রাহুল গান্ধী দু’জনেই তাকে দলে ভেড়াতে ব্যতিব্যস্ত। মোদি আমলে পার্লামেন্টের ১৮টি আসন নিয়ে নবীনের দল ভারতের পঞ্চম বৃহত্তম পার্লামেন্টারি পাটি। বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে, নবীন পট্টনায়ক ২-১৫টি আসন জিতবেন।
দলিত ও নিম্নবর্ণের লোকদের প্রতিনিধিত্ব করা বহুজন সমাজ পার্টির মায়াবতী উত্তরপ্রদেশে বিজেপি বিরোধী জোট গড়তে অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি ও রাষ্ট্রীয় লোকদলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। প্রকাশে বিজেপি নেতাদের সমালোচনা করা মায়াবতী ও অখিলেশ যাদব মোদি-বিরোধী জোটকেই সমর্থন করবেন। বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে তার জোট এসপি-বিএসপি উত্তরপ্রদেশের ৮০টি আসনের মধ্যে ২০ থেকে ৪৫টি আসন পাবে।

নিম্নকক্ষে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর প্রতিনিধি রয়েছে ৪২জন। ১৬তম লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গ থেকে ৩৩জন তৃণমূল নেতা নির্বাচিত হয়েছেন। তবে এবারের বুথ ফেরত জরিপের সমীক্ষা ২৪-২৯টি আসন পাওয়ার সম্ভাবনা প্রত্যাখ্যান করেছেন তিনি।

সমীক্ষা বলছে, জগনমোহন রেড্ডির ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টি স্থানীয় প্রতিদ্ব›দ্বী ও মোদির সাবেক মিত্র চন্দ্রবাবু নাইডুর বিপরীতে জয় লাভ করবে। বিজেপি ও কংগ্রেস দুই দলই রেড্ডির সমর্থন কামনা করছে। ২৩ মে বিরোধী দলগুলোর বৈঠকে যোগ দিতে রেড্ডিকে ফুঁসলাচ্ছে কংগ্রেস। অন্যদিকে বিজেপিও রেড্ডিকে অন্ধ্রপ্রদেশে বিশেষ মর্যাদা দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে। বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে, তার দল অন্ধ্রপ্রদেশের ২৫টি আসনের মধ্যে ২০টি আসন পাবেন।

তামিননাডুতে দাব্রিড় মূনেত্র কড়গমের প্রধান এম.কে স্ট্যালিন অবশ্য জনসম্মুখেই রাহুল গান্ধীকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সম্মোধন করেছেন। সমীক্ষা বলছে, কংগ্রেসের সঙ্গে স্ট্যালিনের জোট তামিলনাডুর ৩৯টি আসনের বিপরীতে ২৭টি আসন পাবে।
তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতির কল্বকুন্তলা চন্দ্রশেখর রাও বিজেপি ও কংগ্রেস বিরোধী ফ্রন্ট গড়ার চেষ্টা করছেন। মিত্রতা গড়ার চেষ্টা করছেন তামিলনাডুর স্ট্যালিনের সঙ্গে। তেলেঙ্গানায়ার ১৭টি আসনের মধ্যে তার দল ১০টি আসন পেতে পারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত