প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘আমাগো সস্তায় এক প্যাকেট বিড়ি খাওয়ান সরকারকে মন ভরে দোয়া করবো’

আসিফ কাজল- ‘আপনি মোগো একটা দাবি মাইনা নেন, মোগো সস্তায় এক প্যাকেট বিড়ি খাওয়ান, মোরা আপনের জন্য দোয়া করবো, সরকারকে আমরা মন ভরে দোয়া করবো।’ ২০ মে সোমবার ভারতের ন্যায় বাংলাদেশের শ্রমিক বান্ধব বিড়ি শিল্পকে কুটির শিল্প ও ভোক্তা অধিকার রক্ষার লক্ষ্যে এবং আসন্ন বাজেটে কম মূল্যে বিড়ি পাওয়ার দাবিতে সর্বস্তরের ভোক্তা পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কথা বলেন বরিশাল কারিগর বিড়ির সদস্য হাবিবুর রহমান।

অনুষ্ঠানে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশে নব্য ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানী হিসেবে আবির্ভাব হয়েছে। পূর্বে অর্থমন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশে সিগারেট ২০৪০ সাল পর্যন্ত চলবে আর বিড়ি ২০৩০ সাল পর্যন্ত স্থায়ী হবে। একই দেশে দ্বৈত নীতি চলতে পারেনা। এসময় তারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে সরকারের কাছে ৬ টি দাবী করেন। দাবীগুলো হলো যথাক্রমে-

১.ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো কোম্পানীর সকল প্রকার ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে।
২. ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো কোম্পানীর সিগারেট এর পরিমাণ বাড়াতে হবে।
৩. কোন সরকারি আমলা বিদেশী বহুজাতিক কোম্পানীর ডাইরেক্টর পদে থাকতে পারবেন না।
৪. ভারতের ন্যায় বিড়িকে কুটির শিল্পে পরিণত করতে হবে
৫. বঙ্গবন্ধুর আমলে যেমন বিড়ির উপর কর ছিলনা, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা সরকারের আমলেও বিড়িতে কর থাকতে পারবে না।
৬.সিগারেটের ন্যায় বিড়ি ২০৪০ সাল পর্যন্ত থাকতে হবে।

এছাড়াও তারা হুঁশিয়ারি উচ্চারন করে বলেন, অযাচিতভাবে বিড়ির দাম বাড়ানো হলে দেশে বিড়ি-সিগারেট চোরাচালান হবে ও সরকার রাজস্ব হারাবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত