প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উত্তরপ্রদেশে জইশ-ই-মোহাম্মদের দুই সদস্য গ্রেপ্তার

খালিদ আহমেদ : ভারতের পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের দেওবন্দ থেকে দুই সন্দেহভাজন জইশ-ই-মোহাম্মদের সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের সন্ত্রাস দমন শাখা এটিএস। শুক্রবার উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ডিজি ওমপ্রকাশ সিংহ এ তথ্য জানিয়েছেন ।

ওমপ্রকাশ সিংহ জানান, পরবর্তী তদন্তের জন্য এই দুজন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে। গ্রেপ্তারকৃতরা কাশ্মীরের বাসিন্দা। পুলওয়ামা হামলায় তাদের সম্পৃক্ততার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না। আনন্দবাজার

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তারকৃত শাহনওয়াজ তেলি এবং আকিব আহমেদ মালিক কাশ্মীরের কুলগাম এবং পুলওয়ামার বাসিন্দা। তাদের কাছ থেকে দুটি পিস্তল, ৩০ রাউন্ড বুলেট এবং জিহাদি নথিপত্র থেকে শুরু করে ভিডিও ও ছবি পাওয়া গেছে।

দেওবন্দের কিছু ছাত্রের কাছ থেকে জানা যায়, এলাকাটিতে কয়েকজন সন্দেহভাজন আছেন। এরপর আইজি(এটিএস) অসীম অরুণের নেতৃত্বে বিশেষ দল এই দুই যুবকের ঘরে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে।

ওমপ্রকাশ বলেন, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে দেওবন্দের একটি ওয়ার্কিং মেন হোস্টেলে অভিযান চালায় এটিএসের বিশেষ বাহিনী। একজন আইজি কর্মকর্তার নেতৃত্বাধীন বাহিনীটি তাদেরকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশের দাবি, গ্রেপ্তারকৃতরা দেওবন্দের ছাত্রদের মগজ ধোলাই করে জইশ-ই-মোহাম্মদের আদর্শে অনুপ্রাণিত করার চেষ্টা করছিল। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে থাকা সংগঠনটির সদস্যদের খোঁজ পাওয়া সম্ভব।

শাহনওয়াজ স্বীকার করেছেন, তিনি জইশ-ই-মোহাম্মদের সক্রিয় ক্যাডার। আকিবও যুক্ত সংগঠনটিতে। ওমপ্রকাশ বলেন, শাহনওয়াজ একজন আইইডি বিশেষজ্ঞ। পুলওয়ামার ঘটনার সঙ্গে এদের যোগাযোগ আছে কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কারণ ওই সময় তারা কোথায় ছিল সেটাও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। ওমপ্রকাশ বলেন, ‘‘ওদের জেরা করে বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে থাকা জইশ জঙ্গিদের এ রকম স্লিপার সেলের হদিশ পাওয়া সম্ভব।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত