প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভাষা আন্দোলন পাকিস্তান সরকারের ভিত নড়বড়ে করে দিয়েছিলো, বললেন মোল্লা মো. আবু কাওসার

লিয়ন মীর : স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা আবু কাওসার বলেছেন, ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন পকিস্তান সরকারের ভিত নড়বড়ে করে দিয়েছিলো। বাঙালিরা অধিকার প্রতিষ্ঠায় প্রয়োজনে রক্ত দিয়ে লড়তে পারে একথা পাকিস্তান সরকারের ধারণায় ছিলো না। ভাষা আন্দোলন ছিলো পকিস্তান সরকারের শোষণ-নির্যাতন থেকে বাঙালির মুক্তির প্রথম ধাপ।
এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হচ্ছে ভাষা আন্দোলনের প্রথম নেতা। ১৯৪৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসের ৭ তারিখে বাংলাদেশের স্থপতি সেদিনের তরুণ যুবক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দৃঢ়কন্ঠে ঘোষণা দিয়েছিলেন, ‘বাংলা ভাষাকে পূর্ব পাকিস্তানের শিক্ষার বাহন ও আইন আদালতের ভাষা করা হউক’। ১৯৪৭ সালের ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি সুদীর্ঘ এক হাজার ৬৩৫ দিন পরও এই ঘোষণা অমর হয়ে ওঠে বাঙালির ভাষা আন্দোলনে আতœদানের মাধ্যমে। বাঙালির ২১ ফেব্রুয়ারি আজ বিশ্বে মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃত। পূর্ব পাকিস্তানকে ছুঁড়ে ফেলে বাঙালি আজ স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছে এই ২১ ফেব্রুয়ারির রক্তমাখা সিঁড়ি বেয়ে।
তিনি বলেন, ২১ ফেব্রুয়ারি বাঙালির জাতীয় জীবনে অসীম তাৎপর্য বহন করে। ১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি সালাম, রফিক, বরকত, জব্বারসহ অজস্র শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের মাতৃভাষা বাংলা ভাষা। পৃথিবীতে আর কোনো জাতিকে তার মায়ের ভাষায় কথা বলার অধিকারের জন্য রক্ত দিতে হয়নি। অমর সাহিত্যবিশারদ মীর মশাররফ হোসেন লিখেছেন, ‘মাতৃভাষায় যাহার শ্রদ্ধা নাই সে মানুষ নহে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত