প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাইজদী সদরে গৃহকর্মীকে অমানুষিক নির্যাতন, গ্রেপ্তার ৪

অনলাইন ডেস্ক : পতিতাবৃত্তিতে  রাজি না হওয়ায়  গৃহকর্মী রাহেলা বেগমকে (১৯) মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করেছে নোয়াখালীর এক পরিবার। তার দাঁত লে ফেলা হয়েছে, রড দিয়ে বেধড়ক পেটানো হয়েছে, এসিডে ঝলসে দেয়া হয়েছে শরীর। পরে ঝলসানো স্থানে পচন ধরলে ফেলে দেয়া হয়েছে ব্রিজের নিচে। নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীর হাউজিং এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

নির্যাতনের শিকার রাহেলা বেগমের গ্রামের বাড়ি হাতিয়ার চানন্দি ইউনিয়নের চরনঙ্গলিয়া এলাকায়। খবর পেয়ে পুলিশ এ ঘটনায় অভিযুক্ত মো. সাহাব উদ্দিন, মিজানুর রহমান সুমন, আলেয়া বেগম ও রীনা আক্তার নামে চারজনকে আটক করেছে। এ ঘটনায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

রাহেলা বেগমের পরিবার জানায়, তাদের প্রতিবেশি রিনা আক্তার প্রায় চার মাস আগে রাহেনাকে বাসায় কাজ দেয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদী নিয়ে যান। এরপর রিনা তার পরিচিত আলেয়া বেগম নামে এক নারীর বাসায় তাকে কাজে দেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত