প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মানসিক প্রতিবন্ধীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ৩ আসামির জবানবন্দি

মনজুর এ অনিক: নারায়ণগঞ্জে অজ্ঞাত তরুণীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় শুক্কুর আলী ও টিক্কা রাকিব নামে দুই আসামি আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। জবানবন্দিতে তারা বলেছে, হত্যার পূর্বে মেয়েটিকে তারা ৮ জন মিলে গণধর্ষণ করে।

বুধবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাউছার আলমের আদালত শুক্কুর আলী ও সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহমেদ হুমায়ূন কবীরের আদালত টিক্কা রাকিবের এ জবানবন্দি গ্রহণ করেন। শুক্কুর (২২) খাগড়াছড়ি জেলার দিঘীনালা থানার ছোট মেরুল ২নং কলোনী ট্রাস্ট টিলার মোহাম্মদ আলীর ছেলে ও টিক্কা রাকিব (২০) চাঁদপুর জেলার হাইমচর থানার গাজীবাড়ী গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে। তারা দীর্ঘদিন ধরে ফতুল্লায় বসবাস করছে।

মামলার তদন্তকারী অফিসার ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক গোলাম মোস্তফা বলেন, গ্রেফতারকৃত শুক্কুর আলী ব্যাটারি চালিত অটো রিকশা চালক। জবানবন্দিতে শুক্কুর আলী জানিয়েছে মেয়েটি মানসিক প্রতিবন্ধী ছিলো। ৮ জানুয়ারী রাত সাড়ে ৯টায় শহরের কলেজ রোডে ঘুরতে দেখে অটো রিকশায় উঠিয়ে কাশিপুরের ভোলাইল এলাকায় নিয়ে যায়। সেখানে জুয়েল, অনিক, আবু তালেব, তৌফিক, সাগর এবং রাসেল, টিক্কা রাকিব ও শুক্কুর আলী তারা ৮ জন মাঠে নিয়ে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ শেষে শ্বাসরোধে হত্যা করে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত