প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভবিষ্যৎ অনেক কঠিন

ডেস্ক রিপোর্ট : মানুষ যে আমাদের ওপর আস্থা রেখেছে, আওয়ামী লীগকে বিশ্বাস করেছে, নৌকাকে বিশ্বাস করেছে, আমাকে বিশ্বাস করেছে, সেই বিশ্বাসের মর্যাদা আমি রাখতে চাই। সবাইকে নিয়ে একটি আধুনিক শহর করতে চাই। আমাদের ভবিষ্যৎ অনেক কঠিন। অনেক কাজ। যেহেতু বছরের পর বছর- দীর্ঘ বছরেও আমাদের এখানে কিছুই হয়নি, কোনো উন্নয়ন হয়নি। নগরের সমস্যাগুলো কীভাবে মোচন করা যায়, তাদের কীভাবে সুন্দর, সচ্ছল জীবনযাপন দেয়া যায় সেটা আমি চেষ্টা করবো।
সবাইকে নিয়েই এ চেষ্টা করবো। বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলমকে ছয়দানা এলাকায় তার নিজ বাসভবনে সর্বস্তরের নাগরিকরা ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাতে এলে তাদের উদ্দেশ্যে নির্বাচনকালীন তৈরি করা প্যান্ডেলে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এসব কথা বলেন।
এ সময় তিনি বলেন, জয় হচ্ছে আল্লাহ প্রদত্ত দান, মানুষ হচ্ছে উছিলা মাত্র। সে হিসেবে আমি নিজে উল্লাস করিনি, বিজয় মিছিল করার জন্যও বলিনি। কারণ আমি মনে করি নগরবাসী আমাকে দায়িত্ব দিয়েছে, আমি তাদের কাজটা করতে চাই। সে কাজের জন্য আমি মনে করি সবার সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে হবে। কে কোন দল করে, সেটা বড় কথা নয়, নগরের সব মানুষকে নিরাপদে রাখতে হবে। সবাইকে নিরাপদে রাখার জন্য দয়া করে যার যার এলাকায়, যারা কাউন্সিলর হয়েছেন বা যারা হতে পারেননি সবাইকে আমার সঙ্গে কাজ করার সুযোগ দিতে হবে। আমার পার্টির সঙ্গে যাদের সুসম্পর্ক, বিশেষ করে আমার সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে যাদের সুসম্পর্ক, আমাদের লোকজনদের অনুরোধ করবো কোনো এলাকার মানুষকে কেউ যেন ছোট করে কথা না বলেন। যারা আমাকে ভোট দিতে না পেরেছে তাদেরকেও অসংখ্য ধন্যবাদ। কারণ সবাইকে নিয়ে আমি নগর গড়তে চাই। আমি উন্নয়নের জন্য এসেছি, পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে চাই, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতায়। সে হিসেবে আমি বলবো, যারা আমার সবচেয়ে কাছের, তারা এলাকার মানুষকে বেশি করে ভালোবাসবেন। আমি আবারো সবার কাছে কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা প্রকাশ করে বলেছি, আপনাদের পরিশ্রমের ফলে আজ আমি মেয়র হতে পেরেছি। আমি সেবার মনোভাব নিয়ে দায়িত্ব পালন করতে চাই। আমি সবার সঙ্গে নগরের ৫৭টি ওয়ার্ডে গিয়ে প্রতিটি ভোটকেন্দ্র এলাকায় গিয়ে কথা কলবো। আপনাদের সঙ্গে পরামর্শ নিয়ে নগরকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করবো। এ সময় মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা আতাউল্লাহ মণ্ডল, কাজী ইলিয়াস, মাজহারুল ইসলামসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সকাল থেকেই নগরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ও নির্বাচনী কেন্দ্রের আওয়ামী লীগ নেতা ও নানা শ্রেণি-পেশার শত শত নারী- পুরুষ ফুল নিয়ে, দলীয় প্রতীক নিয়ে আবার কেউ কেউ মিষ্টি নিয়ে তাকে শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানাতে আসেন।
সূত্র : মানবজমিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত