প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিয়ে করেছেন শবনম ফারিয়া?

ডেস্ক রিপোর্ট : প্রতিনিয়তই হৃদয়-সংসার ভাঙাগড়ার খবর-গুঞ্জনে মুখরিত বিশ্ব শোবিজের আঙিনা। একদিকে লেখা হচ্ছে কারো ডিভোর্সের খবর, অন্যপাশেই কারো নতুন সংসার বাঁধার গল্প। তারকা বলেই হয়তো তাদের সবকিছু নিয়েই সাধারণ মানুষ ও গণমাধ্যমের আগ্রহটা থাকে খানিক বেশি। লুকানো বা গোপনে রাখা বিষয়টিও একমুখ-দুইমুখ করে ছড়িয়ে যায় সর্বত্র।

তেমনি জানা গেল, বিয়ে করেছেন তরুণ প্রজন্মের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। বর্তমানে ঈদের নাটক-টেলিছবির কাজ নিয়ে তুমুল ব্যস্ত সময় পার করছেন। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তার প্রথম চলচ্চিত্র ‌‘দেবী’। এরইমধ্যে গেল কয়েকদিন ধরেই শোবিজে ভাসছে শবনম ফারিয়ার বিয়ের গুঞ্জন।

বলা হচ্ছে সম্প্রতি বিয়ে করেছেন শবনম ফারিয়া। তার বরের নাম হারুনুর রশীদ অপু। বিশ্বস্ত সূত্র বলছে, অপু এশিয়াটিক জে ডব্লিউ টি’র ব্র্যান্ড ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন। অনেকদিনের পরিচয়ের হাত ধরে প্রণয়ে আবদ্ধ হন শবনম-অপু। সেই সম্পর্কের পরিণতিতেই একে অপরের গলায় দাম্পত্যের মালা দিয়েছেন তারা।

তবে কবে হয়েছে শবনম ফারিয়ার বিয়ে সেটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সূত্র বলছে, দুজনের মধ্যে সম্পর্কটা অনেকদিনের। দুজনের পরিবারের মধ্যেও জানাশোনা ছিল। তাই সম্পর্ক বিয়ে পর্যন্ত গড়িয়েছে। এই অভিনেত্রীর কাছের অনেক সহকর্মীও বিয়ের ব্যাপারটি জানেন। তবে শবনম ফারিয়ার আপত্তির কারণেই কেউ বিষয়টি প্রকাশ করেন না। তাদেরই একজন জানালেন, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতেই হয়তো সম্পন্ন হয়েছে শবনম ফারিয়ার বিয়ে।

নিজে বিয়ের খবরটিকে সরাসরি স্বীকার না করলেও শবনম ফারিয়া জানিয়েছেন, শিগগিরিই বিয়ে নিয়ে মুখ খুলবেন তিনি।

শবনম ফারিয়া বলেন, ‘বিয়ে মানুষের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ এবং অত্যন্ত ব্যক্তিগত একটি বিষয়। সেটি নিয়ে সবখানে আলোচনা হোক তা আমার পছন্দ নয়। আমি নিজের মতো করে নিজের জীবনকে উপভোগ করতে চাই। তারকা শবনম ফারিয়া সবার কাছে তার কাজ ও অভিনয়ের জন্য দায়বদ্ধ। কিন্তু আমি বিয়ে করেছি কি-না সেসব মুখ্য কোনো বিষয় নয়।’

হারুনুর রশীদ অপুকে নিয়ে শবনম ফারিয়া বলেন, ‘সে আমার খুব ভালো বন্ধু। আমি অনেকের সঙ্গে ছবি তুলি এবং শেয়ার করি। তাই বলে সেসব ছবি নিয়ে অতিরিক্ত কিছু ভাবা ঠিক?’

ফেসবুক ও ইন্সট্রাগ্রামে হারুনুর রশীদ অপুর সঙ্গে আপনার অন্তরঙ্গ ছবি দেখা গেছে। বিয়ে বা কোনো আন্তরিক সম্পর্ক ছাড়াই এমন করে ছবি তুলেছেন? এই প্রশ্নের জবাবে শবনম ফারিয়া বলেন, ‘মানুষের অনেক ব্যক্তিগত সম্পর্কই থাকতে পারে। সেগুলোকে সবার সামনে আনা উচিত নয়। প্রত্যেকেরই ব্যক্তিগত জীবনে নিজ নিজ সিদ্ধান্ত নেয়ার অধিকার রয়েছে। এ বিষয়ে আর কিছু বলতে চাই না। সময় হলে আমি নিজ থেকেই বিয়ের ঘোষণা দিয়ে সবাইকে জানাবো।’

এদিকে হারুনুর রশীদ অপুর ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট ঘেঁটে দেখা গেল অপুর প্রায় প্রতিটি পোস্ট ও স্ট্যাটাসে মন্তব্য করেন শবনম ফারিয়া। অপুর পরিবার পরিজনদের প্রায় সব ছবিতেই দেখা গেল শবনম ফারিয়ার মুখ। এপ্রিলের ১৫ তারিখ অপু বেশ কিছু ছবি পোস্ট করে লিখেছেন ‌‘পরিবার পরিজন... বড়ই আপন...

বাবা ভালো থেকো...’। অর্থাৎ শবনম ফারিয়াও তার পরিবারের অংশ। ওইদিন পোস্ট করা বৈশাখ উদযাপনের ছবিতে অপু ও শবনম ফারিয়াকে দেখা গেল দম্পতিদের মতোই।

ফেসবুকে শবনম ফারিয়ার একটি আইডি রয়েছে যেখানে ৪ লাখ ৭২ হাজার অনুসারী আছে। সাধারণত এই আইডিটিই সবার কাছে পরিচিত। কিন্তু এর বাইরেও শবনম ফারিয়ার একটি আইডি রয়েছে। সেখানে এক কথোপকথনে শবনম ফারিয়া লিখেছেন, ‘আগামী শুক্রবার আমার শ্বশুরের মৃত্যুবার্ষিকী। আমরা সবাই বাসায় থাকবো।’ এই মন্তব্যও প্রমাণ করে যায় শবনম ফারিয়া বিবাহিত।

খোঁজ নিয়ে জানা গেল, শবনম ফারিয়ার শ্বশুর নেই। শাশুড়ি, দুই দেবর, এক ভাসুর ও জা রয়েছে তার। ভাসুরের একটি মেয়েও আছে। তাকে ঘিরে অপুর পরিবারে সুখের সীমা নেই। সূত্র : জাগো নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত