প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জেনেভা ক্যাম্পে র‌্যাবের মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ১৫৩

সুজন কৈরী : রাজধানীতে মাদকের হাট বলে পরিচিত মোহাম্মদপুর জেনেভা ক্যাম্পে শনিবার সাঁড়াশি অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। ক্যাম্পে ঢোকার ছয়টি প্রবেশপথ অবরুদ্ধ করে ডগস্কোয়াড দিয়ে সার্চ করে বিভিন্ন শ্রেণি, পেশা ও বিভিন্ন বয়সের পাঁচ শতাধিক নারী-পুরুষকে আটক করা হয়। পরে গতকাল সন্ধ্যায় যাচাই-বাচাই শেষে সাড়ে ৩শ’ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়। আর আটক ১৫৩ জনের মধ্যে ৭৭ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও ৭৬ জনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা করা হয়েছে।

র‌্যাব-২-এর অধিনায়ক আনোয়ার উজ জামান বলেন, অভিযানের সময় ৬৬ লাখ টাকা সমমূল্যের ১৩ হাজার পিস ইয়াবা ও ৩০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। তিনি বলেন, আমরা যাদের আটক করেছি তাদের মধ্যে মাদকের গডফাদার নেই। তারা আগেই পালিয়েছে। যারা ধরা পড়েছে তারা খুচরা ও মাঝারি মানের মাদক ব্যবসায়ী। র‌্যাবের এ কর্মকর্তা আরো বলেন, জেনেভা ক্যাম্প দীর্ঘদিন ধরে মাদকের আখড়া হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এখানকার অধিকাংশ লোকই প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে মাদক ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। এর আগে থানা পুলিশ একাধিকবার অভিযান পরিচালনা করেছে। কেউ পুলিশি ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে আবার কেউ জামিনে বেরিয়ে এসে আবারও মাদক ব্যবসায় যুক্ত হয়।

তিনি আরও বলেন, জেনেভা ক্যাম্পে মাদক ব্যবসা আজকের নয়, অনেক পুরনো। ঘনবসতির কারণে এখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করা কঠিন। আমরা সে বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে একাধিক টিম নিয়ে অভিযান চালিয়েছে।

অভিযানে অংশ নেওয়া র‌্যাবের কর্মকর্তারা জানান, কয়েকদিন ধরেই সাদা পোশাকে র‌্যাব সদস্যরা সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করার পর এ অভিযান চালানো হয়। ঢাকাস্থ র‌্যাবের-১, ২, ৩, ৪, ১০ ব্যাটালিয়নসহ সদর দফতরের একটি টিম অভিযানে অংশ নেয়। গতকাল সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে বেলা ১টা পর্যন্ত অভিযান চলে। তবে জেনেভা ক্যাম্পের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ইসতিয়াক, ষোল ও পঁচিশের বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদের পাওয়া যায়নি।

জানা গেছে, জেনেভা ক্যাম্পে প্রবেশের প্রধান ৬টি পথ রয়েছে। এছাড়া আরও ছোট ছোট অনেক পথ আছে। এগুলো সব বন্ধ করে র‍্যাবের ৩৬টি টিম, বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াড নিয়ে অভিযান চালানো হয়। আটককৃতদের র‌্যাব-২ এর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চলে যাচাই-বাছাই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত