প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘দলের প্রয়োজনে টেস্ট খেলতেও প্রস্তুত’

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: মাশরাফি বিন মর্তুজা বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি নাম। যার নেতৃত্বে বাংলাদেশ ক্রিকেটে এসেছে অনেক বড় বড় জয়। আক্রমণাত্মক বোলিং ও দলের প্রেরণার উৎস মাশরাফি। ইনজুরিতে হাঁটুতে সাতবার অস্ত্রোপচারের পর মাশরাফি টেস্ট ক্রিকেট ছেড়েছেন প্রায় ৯ বছর হলো। ২০০৯ সালে সবশেষ বাংলাদেশের হয়ে টেস্ট ক্রিকেট খেলেছেন। ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও প্রিয় ফরমেটে এরপর আর খেলা হয়নি তার।
এদিকে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফিল্ডিং করতে গিয়ে চোট পেয়ে প্রথম টেস্টে ছিটকে গেছেন টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তাই লঙ্কানদের সঙ্গে ৩১ জানুয়ারি থেকে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় সিরিজের প্রথম টেস্টে তার খেলা হচ্ছে না।
ফলে দলে যোগ্য নেতৃত্ব শূন্য হওয়ার একটি সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। এমতাবস্থায় দেশের প্রয়োজনে টেস্ট খেলতেও প্রস্তুত বলে জানালেন ওয়ানডে দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা।
তিনি বলেন -‘যদি টিমের প্রয়োজন হয়, অবশ্যই চেষ্টা করবো। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ (সহ-অধিনায়ক) আছে। আমার বিশ্বাস ও দলকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে। আর সিনিয়র খেলোয়াড় যারা আছে, তাদের সহযোগিতা তো থাকবেই’।
শনিবার ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালের পর সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি একথা বলেন। মাশরাফি যখন একথা বলছিলেন তখনও বিসিবি ঘোষণা করেনি যে মাহমুদউল্লাহ-ই এই টেস্টের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। সহ-অধিনায়ক হিসেবে সেটা তারই করার কথা। তাই মাহমুদউল্লাহকে অধিনায়ক ধরেই দলের পাশে দাঁড়ালেন ম্যাশ।
এদিকে সাকিবের ছিটকে যাওয়াটাকেও তিনি চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন। তার ভাষ্য, ‘প্রথমত এটাই চ্যালেঞ্জ (সাকিবের অনুপস্থিতি) দলের জন্য। যদি বলেন, এখান থেকে কীভাবে উঠে আসা যায়, ভালো খেলা যায়, বলবো টেস্ট সিরিজটা আমাদের জন্য খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ওয়ানডে সিরিজ হেরেছি এজন্য না, ওয়ানডের সঙ্গে টেস্টের একটা পার্থক্য থাকেই।’

‘টেস্ট সিরিজ জিতলে হয়তো টিমের পুরো চেহারাটাই অন্যরকম হয়ে যাবে। আমরা এখন টেস্টের দিকে তাকিয়ে আছি,’ যোগ করেন মাশরাফি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত