প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকাতেই এ পরিস্থিতির উদ্ভব: খালেকুজ্জামান

আশিক রহমান : শিক্ষকদের বেতন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো রাজনৈতিক প্রভাবমুক্ত রাখা, সুনির্দিষ্ট নীতিমালার ভিত্তিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে পরিচালনা করার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকার কারণেই বারবার এরকম পরিস্থিতির উদ্ভব হচ্ছে। আমাদের অর্থনীতির সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেন বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান।

তিনি বলেন, সার্বিক নীতিমালা প্রণয়ন না করাতেই শিক্ষকেরা শুধু নির্বাচন এলেই সরকারের উপর চাপ প্রয়োগের চেষ্টা করে থাকে। এখন যেহেতু নির্বাচন সামনে তাদের সমর্থন কী করে আদায় করা যায় সেই কাজটির দিকেই তাদের মনোযোগ বেশি, কী করে একটা নীতিমালা প্রণয়ন করা যায় সেদিকে মনোযোগ কম।

তিনি আরও বলেন, আমলান্ত্রিক এক ধরনের প্রশাসনিক শৃঙ্খলা আছে, কিন্তু শিক্ষা ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা বিধান এখনো তারা গড়ে তুলতে পারেনি। সবকিছু মিলিয়ে শিক্ষা ব্যবস্থায় বারবার এসব সমস্যা আবির্ভূত হচ্ছে। বহু শিক্ষক রয়েছেন যারা ১০-১২ বছর ধরে শিক্ষকতা করছেন, তাদের কোনো বেতন নেই। সরকার তাদের স্বীকৃতি দিচ্ছে, কিন্তু দায়িত্ব নিচ্ছে না। আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও শিক্ষকদের মানদ-ও নির্ধারিত হচ্ছে না। এখানে প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্ত ক্ষেত্রেই সামগ্রিক অর্থেই একটা শৃঙ্খলাবিধান করা এবং শিক্ষার নীতি প্রণয়ন করার ক্ষেত্রে যে অরাজকতা রয়েছে তা দূর করা দরকার।

খালেকুজ্জামান বলেন, শিক্ষা ব্যবস্থায় এই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি যদি আগে থেকেই সমাধানের চেষ্টা করত, উদ্যোগ গ্রহণ করত আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে তাহলে এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হতো না। সরকারও যেমন ঝুলিয়ে রাখে, অন্যরাও তখন নির্বাচনের আগে একটা চাপ প্রয়োগ করে। এরকম পরিস্থিতি কারো কাম্য নয়।

তিনি বলেন, বিনামূল্যে সারাদেশে বই বিতরণ করার কৃতিত্ব যেমন সরকারে আছে, পাশাপাশি শিক্ষা ব্যবস্থায় এখন যে একটা অরাজকতা বা নৈরাজ্য বিরাজ করছে। সমস্যা সমাধানে কার্যকর কোনো উদ্যোগ না গ্রহণ করার ফলে শিক্ষকেরা আজকে রাজপথে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত