প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইজরায়েলের সঙ্গে ন’টি চুক্তি স্বাক্ষর করলো ভারত

আশিস গুপ্ত, নয়াদিল্লি: ভারত-ইজরায়েল সম্পর্কের আর একটি ঐতিহাসিক মাইলফলক বসলো সোমবার। ইজরায়েলের সঙ্গে খনিজ তেল, গ্যাস, বিমানবন্দরে প্রোটকল, সাইবার নিরাপত্তা সংক্রান্ত মোট ন’‌টি চুক্তি স্বাক্ষর করল ভারত। ছ’‌দিনের সফরে রবিবার ভারতে এসেছেন ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু । অ্যারিয়েল শ্যারনের পরে দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ভারতে এসেছেন তিনি।

সোমবার সকালে রাষ্ট্রপতি ভবনে তাঁকে নিয়মমাফিক অভ্যর্থনা জানানো হয়। সোমবার সন্ধ্যায় ভারত–ইজরায়েল সিইও ফোরাম মিটিং–এর দ্বিতীয় বৈঠকে অংশ নিয়েছেন ভারত এবং ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী। নরেন্দ্র মোদির ইজরায়েল সফরের সময়ে এই সংগঠনের প্রথম বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল সেখানে। ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদিই ইজরায়েলে গিয়েছিলেন। নরেন্দ্র মোদীকে ‘বিপ্লবী নেতা’র শিরোপা দিলেন ভারত সফররত ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। ৩ হাজার বছরের মধ্যে প্রথম কোনও ভারতীয় নেতার ইজরায়েলে যাওয়ার জন্য এই শিরোপা। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে যোগাভ্যাসের ক্লাস করার ইচ্ছাও প্রকাশ করেছেন ইজরায়েলের নেতানিয়াহু।

দু’দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক আরও জোরদার হয়ে ওঠার আভাস মেলার পাশাপাশি সোমবার, সরকারি ভাবে, আরও কাছাকাছি এল ভারত ও ইজরায়েল।প্রতিরক্ষা, কৃষি, মহাকাশ প্রযুক্তি-সহ ৯টি ক্ষেত্রে দু’দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত হল সমঝোতা পত্র (‘মেমোরেন্ডাম অব আন্ডারস্ট্যান্ডিং’ বা,‘মউ’)।এ দিন দিল্লির ‘হায়দরাবাদ হাউস’-এ দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিনিধিদলের বৈঠকে ওই ৯টি ‘মউ’ স্বাক্ষর হয়েছে। সহযোগিতার ক্ষেত্র সম্প্রসারণের অঙ্গীকার করা হয়েছে তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস, অপ্রচলিত শক্তি ও সাইবার নিরাপত্তা, বিমানবন্দরের প্রোটোকলেও। যৌথ ভাবে চলচ্চিত্র ও তথ্যচিত্র নির্মাণের জন্যেও ‘মউ’ হয়েছে দু’দেশের মধ্যে।‘মউ’ স্বাক্ষরের পর যৌথ বিবৃতিও দেন দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী।

ইজরায়েলের অস্ত্র ও প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম নির্মাণ সংস্থাগুলিকে এ দেশে এসে উৎপাদনের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।গত এক বছরে যে দু’দেশের প্রধানমন্ত্রী ব্যক্তিগত ভাবে আরও কাছাকাছি এসেছেন, ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের প্রথম দু’টি দিনেই তার পর্যাপ্ত প্রমাণ মিলেছে।রবিবার প্রধানমন্ত্রী মোদী তাঁর বাসভবনে ব্যক্তিগত ভাবে নৈশভোজে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু ও তাঁর স্ত্রী সারাকে।

এ দিন রাষ্ট্রপতি ভবনে গিয়ে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সরকারি বৈঠক শুরুর আগেও নেতানিয়াহুকে বলতে শোনা যায়, ‘‘আমি আর সারা মুম্বইয়ে গিয়ে বলিউড তারকাদের সঙ্গে দেখা করার জন্য উন্মুখ হয়ে রয়েছি।’’গত বছর সরকারি সফরে ইজরায়েলে গিয়ে তেল আভিভ বিমানবন্দরে নেমেই অভ্যর্থনা জানাতে আসা প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে আলিঙ্গন করেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। তারপর ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘‘ভারত ও ইজরায়েলের বৈবাহিক সম্পর্কটা স্বর্গেই ঠিক হয়েছে!’’

রবিবার দিল্লির ইন্দিরা গাঁধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার পর ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রীকে ফের ‘বেয়ার হাগ’ করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।তবে এত কিছুর পরেও জেরুসালেম প্রশ্নে রাষ্ট্রপুঞ্জের প্রস্তাবে ইজরায়েলের বিপক্ষে ভারতের ভোট পড়ায় তিনি ‘হতাশ’ বলে জানিয়েছেন। সঙ্গে অবশ্য এও জুড়ে দিয়েছেন, ‘‘তা সত্ত্বেও এই সফর দু’টি দেশকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে আরও কাছাকাছি এনে দেবে বলেই আমার বিশ্বাস।’’ মঙ্গলবার মুম্বই, আগ্রা যাবেন নেতানিয়াহু। যাবেন মোদীর রাজ্য গুজরাতেও। আর তাঁর সফরের অধিকাংশ সময়েই সঙ্গী থাকবেন মোদী। ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এসেছে ১৩০ সদস্যের বাণিজ্য প্রতিনিধি দল। এঁদের নিয়েই নেতানিয়াহু দেখা করবেন মুম্বইয়ের শিল্পপতিদের সঙ্গে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত