শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৪ অক্টোবর, ২০২২, ০৬:২২ বিকাল
আপডেট : ০৪ অক্টোবর, ২০২২, ০৬:২২ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বাসের ধাক্কায় স্ত্রী নিহত, স্বামী-সন্তান আহত

মমতাজুর রহমান, আদমদীঘি (বগুড়া) : বগুড়ার আদমদীঘিতে দূর্গাপূজার বিভিন্ন পূজামন্ডপ ঘুরে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে বাসের ধাক্কায় পল্লীসমবায় ব্যাংকের মাঠকর্মী কান চন্দ্র মহন্তের স্ত্রী সুমী (৩০) নিহত হয়েছেন। এসময় তিনি ও তার দুই বছর বয়সী শিশুসন্তান সুকর্ণ মহন্ত আহত হয়েছেন।

সোমবার রাত ৯টায় বগুড়া-নওগাঁ মহাসড়কে আদমদীঘি ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের নিকট দূর্ঘটনাটি ঘটে। জানা যায়, উপজেলার কাঞ্চন পুর গ্রামের বাসিন্দা কান চন্দ্র মহন্ত। তিনি পল্লীসমবায় ব্যাংকে চাকরির সুবাদে আদমদীঘি সদর ইউনিয়নের তালশন গ্রামে বাসা ভাড়া নিয়ে স্বপরিবারে বসবাস করেন।

সোমবার সন্ধ্যায় তিনি মোটরসাইকেলে স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে বিভিন্ন পূজামন্ডপে ঘুরতে বের হন। রাত ৯ টায় মুরইল থেকে ফেরার পথে আদমদীঘি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন এলাকায় পৌঁছা মাত্র বিপরীতমুখী ঢাকা গামী বাসের (নাইট কোচ) সাথে ধাক্কা খেয়ে তারা গুরুত্বর আহত হন।

স্থানিয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক কা নের স্ত্রী সুমীকে মৃত ঘোষণা করেন।

এসময় গুরুত্বর আহত কান ও তার শিশু সন্তান সুকর্ণকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম রেজা জানান, দূর্ঘটনার পর তাদের মোটরসাইকেলসহ তারা সড়কের পাশে পড়ে ছিল।

স্থানিয়রা তড়িঘড়ি করে তাদের হাসপাতালে নেয়। সেখানেই সুমী নামের এক নারী মারা যায়। এঘটনায় গুরুত্বর আহত স্বামী ও সন্তানকে বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

  • সর্বশেষ