শিরোনাম
◈ মিয়ানমার সীমান্তে আগের পরিস্থিতি আর সৃষ্টি হবে না: প্রত্যাশা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর  ◈ জাতীয় পার্টিতে কোনো বিভেদ নাই: রওশন এরশাদ ◈ সাংবাদিকরা চাষাবাদ করছেন কি না, দেখার দায়িত্ব পেলেন শাইখ সিরাজ ◈ কারামুক্ত বিএনপি নেতা আলালের স্বাস্থ্যের খোঁজ নিলেন মঈন খান ◈ গাজায় যুদ্ধ নয়, গণহত্যা চলছে: প্রধানমন্ত্রী ◈ শুক্রবার বিশ্বে বাতাস দূষণের তালিকায় ঢাকা ছিল সপ্তম ◈ মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে নির্বাচন  নিয়ে কেউ প্রশ্ন করেনি: প্রধানমন্ত্রী ◈ লোহিত সাগরে হামলায় ব্যবহার করা হবে সাবমেরিন অস্ত্র: হুথি নেতা  ◈ ২১ বলে সেঞ্চুরি করে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন আসজাদ ◈ যারা সরকার উৎখাত করতে চায়, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি তাদেরই কারসাজি: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর, ২০২৩, ০৬:৫৩ বিকাল
আপডেট : ২৪ নভেম্বর, ২০২৩, ০৬:৫৩ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

নির্বাচনকে সামনে রেখে সাইবার বুলিং প্রতিরোধে বিশেষ কার্যক্রম চালু

মাজহারুল মিচেল: [২] জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) উদ্যোগে সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর এবং মানসিক স্বাস্থ্য সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ‘মনের বন্ধু’ যৌথভাবে এ কার্যক্রম চালু করেছে।

[৩] সাইবার বুলিং ও অনলাইনের ক্ষতিকর প্রভাব রোধে মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতা তৈরি ও দক্ষতা বৃদ্ধি শীর্ষক এ বিশেষ কার্যক্রমটি আগামী কয়েক মাস সারা দেশেই চলবে।

[৪] এ উদ্যোগের প্রাথমিক লক্ষ্য হলো সচেতনতা তৈরি করা ও সহায়তা দেওয়া; বিশেষ করে নারী শিক্ষার্থীদের। যেন তারা সাইবার বুলিং থেকে রক্ষা পেতে পারে এবং নিজের সুরক্ষিত রাখতে পারে। জাতীয় পর্যায়ের এই কার্যক্রমটি ইউএনডিপি-ডিপিপিএ’র যৌথ বৈশ্বিক উদ্যোগ ইন্টেগ্রেটিং মেন্টাল হেলথ অ্যান্ড সাইকোসোশ্যাল সাপোর্ট (এমএইচপিএসএস) ইন কনফ্লিক্ট প্রিভেনশন অ্যান্ড পিসবিল্ডিং এর অংশ।

[৫] ইউএনডিপির প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। ডিজিটাল প্রযুক্তির উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশ অনলাইন সংযোগের সুফল পাচ্ছে, একই সঙ্গে মোকাবিলা করছে সাইবার বুলিং ও অনলাইনে হয়রানির চ্যালেঞ্জও। বিশেষ করে নারীদের সঙ্গে সাইবার বুলিং ও অনলাইনে হয়রানির ঘটনা বেশি ঘটছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তাদের পরিবার, সেই সঙ্গে পুরো সমাজ।

[৬] তাই মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতা তৈরি ও দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ইউএনডিপির নেওয়া এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সাইবার বুলিংয়ের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা শুধুই একটি প্রচারণা নয়, ডিজিটাল উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে আমাদের দেশের মানুষের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার পথে একটি বড় পদক্ষেপ।

[৭] এ কার্যক্রমে সহযোগিতা করছে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের উইমেন পিস ক্যাফে। এ ছাড়া জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের আওতাধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি), ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর পিস অ্যান্ড জাস্টিস (সিপিজে), ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্র্যান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি), সিবিএম গ্লোবাল ডিজ্যাবিলিটি ইনক্লুশন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এবং ইউএন উইমেনের বিশেষজ্ঞরা দিচ্ছেন পরামর্শ ও নির্দেশনা।

[৮] এই উদ্যোগ সম্পর্কে ইউএনডিপি বাংলাদেশের আবাসিক প্রতিনিধি স্টেফান লিলার বলেন, সবার জন্য নিরাপদ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক ডিজিটাল পরিবেশ তৈরির পথে এটি গুরুত্বপূর্ণ এক পদক্ষেপ, যে পরিবেশে সবাই নির্ভয়ে নিজেকে আরও সমৃদ্ধ করতে পারবে। আর তাহলেই আমরা সবাই মিলে এমন একটি বাংলাদেশ গড়তে পারব, যেখানে ডিজিটাল স্পেস হবে সাইবার বুলিং মুক্ত, এবং নিশ্চিত হবে আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের সুস্থতা।

[৯] নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, সঠিক দিকনির্দেশনার মাধ্যমে আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের এমন একটি পথ দেখাতে চাই, যে পথে তারা আত্মবিশ্বাস ও দায়িত্বশীলতার সঙ্গে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারে।

[১০] সিপিজের নির্বাহী পরিচালক মঞ্জুর হাসান ওবিই বলেন, এর ফলে আমাদের শিক্ষার্থীরা সাইবার বুলিংয়ের বিপদ সম্পর্কে জানবে, তাদের মানসিক দৃঢ়তা নিশ্চিত হবে।

[১১] মনের বন্ধুর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদা শিরোপা বলেন, মনের বন্ধু সব সময়ই একটি লিঙ্গ-সংবেদনশীল ও শক্তিশালী কমিউনিটি তৈরি করতে চায়। সম্পাদনা: তারিক আল বান্না

এমএম/টিএবি/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়