শিরোনাম
◈ সংঘাতের পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে ◈ দেশজুড়ে সহিংসতার ঘটনায় অভিযান, গ্রেপ্তার ২৭৪৭ ◈ আজ বিদেশি কূটনীতিকরা ধ্বংসযজ্ঞ পরিদর্শনে যাবেন ◈ চলমান সংকটে রাজশাহীতে কৃষিখাতে দিনে ২০ কোটি টাকার ক্ষতি ◈ কারফিউ শিথিল সময়ে চলবে দূরপাল্লার বাস ◈ প্রাণহানি ও ধ্বংসাত্মক ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেছে সম্পাদক পরিষদ ও নোয়াব ◈ ড. ইউনূস রাষ্ট্রদ্রোহী কাজ করেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ বাংলাদেশের সহিংসতা বন্ধে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি জরুরি আহ্বান জানিয়েছেন ড. ইউনূস ◈ নরসিংদী কারাগার থেকে পালানো ১৩৬ কয়েদির আত্মসমর্পণ ◈ কতজন শিক্ষার্থী মারা গেছেন, জানতে সময় লাগবে: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১০:০৪ রাত
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ০২:২২ দুপুর

প্রতিবেদক : নাহিদ হাসান

রংপুরকে ৬ উইকেটে হারিয়ে বিপিএলের ফাইনালে কুমিল্লা

নাহিদ হাসান: বড় লক্ষ্য দিয়েও শেষ রক্ষা হলো না রংপুর রাইডার্সের। তাওহীদ হৃদয় এবং লিটন দাসের জুটিতে ভর করে রংপুরকে ৬ উইকেটে হারিয়ে চলতি বিপিএলের ফাইনালে প্রথম দল হিসেবে পা রেখেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। তবে এ হারের পরেও ফাইনালে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে রংপুরের। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি (বুধবার) দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে ফরচুন বরিশালের মুখোমুখি হবে রংপুর রাইডার্স।

প্রথম দল হিসেবে ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে (২৬ ফেব্রুয়ারি) সোমবার ১ম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিং নেন কুমিল্লার অধিনায়ক লিটন দাস। টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ২৭ রানে তিন উইকেট হারায় রংপুর। শুরুর দিকে ডাক মারেন শামিম পাটোয়ারি। এরপর রনি তালুকদার দুই চারে ১১ বলে ১৩ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন। সাকিব আল হাসান এদিন সুবিধা করতে পারেননি। ৫ রান করে তিনিও রনির পথ ধরেন। 

এরপর শেখ মাহেদীর সঙ্গে ৩৯ রানের জুটি গড়েন জিমি নিশাম। ২২ রান করে মাহেদী সাজঘরে ফিরলেও জিমি নিশাম ক্রিজে থিতু হন। নিকোলাস পুরান ৯ বলে ১৪ রান করে মুশফিক হাসানের বলে মইন আলীর হাতে ক্যাচ দেন। তার বিদায়ের পর অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের সাথে ৫৩ রানের জুটি গড়েন জিমি। সোহান ৩০ রান করে সাজঘরে ফিরলেও শেষপর্যন্ত সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়ে ৪৯ বলে ৯৭ রানে অপরাজিত থাকেন জিমি নিশাম। ১৮৫ রানে শেষ হয় রংপুরের ইনিংস। 

কুমিল্লার হয়ে বোলিংয়ে ২ উইকেট নেন আন্দ্রে রাসেল। এছাড়া একটি করে উইকেট পান বর্ষণ, নারিন, মুশফিক এবং তানভির।

১৮৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম বলেই সুনিল নারিনের উইকেট হারায় কুমিল্লা। তবে এরপর তৌহিদ হৃদয় এবং লিটন দাস ১৪৩ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে যান। ৪৩ বলে ৬৪ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন হৃদয়। এরপর ধীরে শুরু করেও শেষপর্যন্ত ৫৭ বলে ৮৩ রানের দারুণ ইনিংস খেলে দলকে বিপদমুক্ত করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন অধিনায়ক লিটন দাস। মইন আলির ১২* সাথে আন্দ্রে রাসেল ২ রানে অপরাজিত থেকে দলকে ৬ উইকেটের বড় জয় এনে দেন।

রংপুরের হয়ে বোলিংয়ে ফজল হক ফারুকী ২ উইকেট নেন। একটি করে উইকেট পান মেহেদী ও আবু হায়দার। ম্যাচসেরা হয়েছেন কুমিল্লার অধিনায়ক লিটন দাস।

এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়