শিরোনাম
◈ বিএনপিতে শুদ্ধি অভিযান শুরু, সরকারের সঙ্গে আঁতাতের অভিযোগে ফেঁসে যাচ্ছেন শতাধিক নেতা  ◈ তুরস্কে কন্ট্রাক্ট ফার্মিংয়ে বাংলাদেশি কৃষিবিদ ও কৃষক নিয়োগের প্রস্তাব  ◈ ফুটপাত থে‌কে জ্বলন্ত চুলা ও সিলিন্ডার সরা‌লো পু‌লিশ, আটক ৮  ◈ প্রধানমন্ত্রীকে বড়পীর আব্দুল কাদের জিলানীর (র.) মাজার জিয়ারতের আমন্ত্রণ ◈ রাজধানীজুড়ে রেস্তোরাঁয় পুলিশি অভিযান, আটক ৩৫ ◈ প্রবাসী আয়ে চমক, ৮ মাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স ফেব্রুয়ারিতে ◈ রমজানে সৌদি আরবে মাইক ব্যবহার ও সম্প্রচার সীমিত করে ৯ দফা নির্দেশনা ◈ পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ ◈ বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ড হাইকোর্টে রিট দায়ের ◈ গাজায় মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ বন্ধে ঐক্যবদ্ধ উদ্যোগের আহবান বাংলাদেশের

প্রকাশিত : ০৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ০২:৫২ রাত
আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ০৩:৩৬ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

পিংক সিটির মালিক এবং জামায়াত-শিবির

মুশফিক ওয়াদুদ

মুশফিক ওয়াদুদ: গত চার দলীয় সরকারের আমলে জামায়াত এবং শিবিররে বহু নেতাকর্মী রিয়েল এস্টেট ব্যবসায় গিয়েছিলেন। এখনও হয়তো আছেন। এদের বেশ বড় অংশ ছিল চূড়ান্ত প্রতারক। অনেক ক্রেতাই খুবই অসন্তুষ্ট ছিলেন জামায়াত সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন রিয়েল এস্টেট কোম্পানি নিয়ে, তাদের কাছ থেকে এপার্টমেন্ট, জমি কিনে । এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অভিযোগ ছিল পিংক সিটি জেনোভ্যালির চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে। সাংবাদিক থাকতে ক্রেতাদের বেশ কয়েকটি সংবাদ সম্মেলন কাভার করেছি। একবার এক সংবাদ সম্মেলনে এক ক্রেতা ইন্টারেস্টিং একটি কথা বলেছিলেন যেটা সংবাদে লিখতে পারিনি। ভদ্রলোক ছোটখাট একটি ব্যবসা করতেন। কিশোরগঞ্জে পৈত্রিক জমি বিক্রি করে পিংক সিটিতে জমি কিনেছিলেন। বললেন, তিনি জামায়াতকে পছন্দ করতেন।

পিংক সিটির মালিকদের বুজুর্গ ভাব থেকে জমি কিনেছিলেন। আরো বললেন, আগে চাইতেন জামায়াত একবার ক্ষমতায় আসুক। জামায়াত সংশ্লিষ্ট এক ব্যবসায়ীর কাছে প্রতারিত হয়ে তাঁর মনে হয়েছে জামায়াতের ক্ষমতার কাছাকাছি যাওয়া উচিত না কখনো। ‘এরা মিষ্টি মিষ্টি কথা বলে পাবলিকের ১২ টা বাজায় দিবে’, বলেছিলেন তিনি। এখন পিংক সিটি জেনোভ্যালির কি অবস্থা জানি না। লেখক ও গবেষক

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়