শিরোনাম
◈ শান্তি-শৃঙ্খলা ফেরাতে আইনশৃঙ্খলা  বাহিনীকে কঠোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ◈ সরকার আলোচনার কোনো পরিস্থিতি রাখেনি, কর্মসূচী অব্যাহত রাখার ঘোষণা: বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন ◈ বিটিভিতে হামলা-আগুন, সম্প্রচার বন্ধ ◈ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ◈ আমরা ধৈর্যের পরীক্ষা দিচ্ছি, এটা দুর্বলতা নয়: ডিবিপ্রধান ◈ নরসিংদীতে গুলিতে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর মৃত্যু, আহত শতাধিক ◈ চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ২ ◈ নেত্রকোনায় ইউএনও, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ আহত অর্ধশত, ৭ আন্দোলনকারী গুলিবিদ্ধ ◈ শান্তিপূর্ণ সমাধানের দিকে এগোতে চায় সরকার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী ◈ শিক্ষার্থীদের পরিবর্তে বিএনপি-জামাত আগুন-সন্ত্রাস নিয়ে মাঠে নেমেছে: ওবায়দুল কাদের   

প্রকাশিত : ০৯ জুন, ২০২৩, ০৩:০৬ দুপুর
আপডেট : ০৯ জুন, ২০২৩, ০৫:৩৩ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বাঁশখালীর এসএস পাওয়ার প্ল্যান্টের বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ

কল্যাণ বড়ুয়া, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম): বাঁশখালীর গন্ডামারায় অবস্থিত ১৩২০ মেগাওয়ার্ট কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প থেকে জাতীয় গ্রিডে ৪দিন বিদ্যুৎ সরবরাহের পর বৃহস্পতিবার (৮ জুন) দিবাগত রাত থেকে উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। কয়লার সংকটের কারণে এ উৎপাদন বন্ধ হয় বলে জানিয়েছেন, এসএস পাওয়ার প্ল্যান্টের উপ প্রকল্প পরিচালক (ইলেকট্রিক্যাল) প্রকৌশলী মো. ফয়জুর রহমান। 

প্রকৌশলী মো. ফয়জুর শুক্রবার (৯ জুন) দুপুরে এ ব্যাপারে আরো বলেন, এ প্রকল্প থেকে বিগত ৪দিন যাবত গড়ে ৩০০-৩৫০ মেগাওয়ার্টের উপরে জাতীয় গ্রিড়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ করেছি। বৃহস্পতিবার রাতে কয়লা সংকটের কারণে উৎপাদন বন্ধ করতে বাধ্য হই। আগামী ২০ জুনের আগে আবারো উৎপাদনে যেতে পারব কিনা জানিনা। চলতি মাসে এ প্রকল্পের জন্য কয়লা আসবে, তখন পুনরায় চালু করা হবে।

চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারি বাঁশখালীর ১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন এসএস পাওয়ার প্ল্যান্টটি জাতীয় গ্রিডের ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইনের সঙ্গে যুক্ত হয়। এসএস পাওয়ার প্ল্যান্টের কর্মকর্তারা জানান, কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প হলেও সুপার ক্রিটিক্যাল প্রযুক্তির কারণে পরিবেশ দূষণের আশঙ্কা নেই। এই প্রযুক্তিতে কম কয়লা পুড়িয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যাবে। 

এদিকে, গত ২৬ ফেব্রয়ারি দেশের সর্ববৃহৎ ১৩২০ মেগাওয়াট কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প (এসএস পাওয়ার প্ল্যান্ট) পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্ঠা তৌফিক-ই এলাহী চৌধুরী বীরবিক্রম। এরপর গত ২৪ মে থেকে জাতীয় গ্রিড়ে বিদ্যুৎ সরবারাহ শুরু হয়। 

দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্প প্রতিষ্টান এস আলম গ্রুপ ও চীনের সেপকো থ্রির মালিকাধীন বাঁশখালীর গন্ডামারায় ১৩২০ মেগাওয়ার্ট এসএস পাওয়ার প্ল্যান্টের ১ নম্বর ইউনিটের বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে পরীক্ষামূলক সরবরাহ শুরু করেন। 

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে বেসরকারি খাতের সবচেয়ে বড় এই বিদ্যুৎ প্রকল্প বাস্তবায়নে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) ও এসএস পাওয়ারের মধ্যে চুক্তি সই হয়। চুক্তিতে বলা হয়, ২৫ বছর ধরে পিডিবি এই কেন্দ্রে উৎপাদিত সব বিদ্যুৎ কিনবে। সারাদেশে যখন বিদ্যুৎ সমস্যা নিয়ে আলোচনা চলছিল বাঁশখালীর ১৩২০ মেগাওয়াট কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প (এসএস পাওয়ার প্ল্যান্ট) এর উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিড়ে যুক্ত হয়ে আশার আলো দেখালোও ৪ দিন যেতে না যেতেই তা বন্ধ হয়ে যাওয়াতে হতাশায় ভুগছে সাধারণ জনগন। সম্পাদনা: মাজহারুল ইসলাম

প্রতিনিধি/এমআই/একে

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়