শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৪ এপ্রিল, ২০২৪, ০৩:৫১ দুপুর
আপডেট : ০৪ এপ্রিল, ২০২৪, ১১:০৫ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

আসন্ন ব্রিটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিপুল পরাজয়ের মুখে প্রধানমন্ত্রী সুনাকের দল: জরিপ

ইকবাল খান: [২] সর্বশেষ জরিপ অনুযায়ি, আসন্ন ব্রিটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে বড় ব্যবধানে হারতে যাচ্ছে প্রদানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের কনজারভেটিভ পার্টি। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

[৩] বুধবার (৩ মার্চ) প্রকাশিত ইউগভ পরিচালিত এক জরিপ বলছে, ৬৫০ আসনের পার্লামেন্ট নির্বাচনে ১৫৫ আসন জিতবে ঋষি সুনাকের দল। আর বিরোধী লেবার পার্টি ৪০৩টি আসনে জিতবে। সূত্র: চায়নাডেইলি

[৪] জরিপকারী সংস্থা ইউগভ আনুমানিক ভোট ভাগের ভিত্তিতে পৃথক সংসদীয় আসনের ফলাফলের ভবিষ্যদ্বাণী করে থাকে । 

[৫] ২০১০ সাল থেকে যুক্তরাজ্যের ক্ষমতায় রয়েছে কনজারভেটিভরা। কখনো জোট, কখনো এককভাবে সরকার গড়েছে তারা। এই সময়ের মধ্যে পাঁচজন ভিন্ন ভিন্ন প্রধানমন্ত্রী দেশটি শাসন করেছেন। 

[৬] কনজারভেটিভ শাসনামলে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়া নিয়ে ভোটাভুটি এবং কোভিড সংকট মোকাবিলা নিয়ে কেলেঙ্কারিতে দীর্ঘ রাজনৈতিক অস্থিরতার মুখে পড়েছিল দেশটি।

[৭] ইউগভের জরিপ বলছে, আগামী মে মাসের স্থানীয় নির্বাচনের আগে জনপ্রিয়তার দৌড়ে পিছিয়ে রয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋশি সুনাক।

[৮] সংস্থাটি গত জানুয়ারিতে যে মডেল প্রকাশ করেছিল, তার তুলনায় বুধবার প্রকাশিত মডেলে কনজারভেটিভদের অবস্থার কিছুটা অবনতি হয়েছে এবং লেবার পার্টি ভালো করেছে।

[৯] ইউগভ জানিয়েছে, কনজারভেটিভ পার্টির উল্লেখযোগ্য নেতাদের মধ্যে যারা নির্বাচনে হারতে পারেন, তাদের মধ্যে রয়েছেন ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী জেরেমি হান্ট এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী পেনি মর্ডান্ট।

[১০] জরিপের জন্য গত ৭ থেকে ২৭ মার্চ পর্যন্ত ১৮ হাজার ৭৬১ জন প্রাপ্তবয়স্ক ব্রিটিশ নাগরিকের সাক্ষাৎকার নেয় ইউগভ। 

[১১] সংস্থাটি জানিয়েছে, আসন্ন নির্বাচনে লেবার পার্টি ৪১ শতাংশ এবং কনজারভেটিভরা ২৪ শতাংশ ভোট পেতে পারে। যদিও এই মুহূর্তে যাদের ভোট দেওয়ার ইচ্ছা নেই, তাদের মনোভাব পরিবর্তিত হলে নির্বাচনের বাস্তব ফলাফল ভিন্ন হতে পারে বলেও সতর্ক করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়