শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৩ ডিসেম্বর, ২০২৩, ১২:০০ দুপুর
আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর, ২০২৩, ১২:০৬ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

নবীনবরণ ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক

আমরা করেছি মুক্তিযুদ্ধ, তোমাদের যুদ্ধ সত্যিকারের মানুষ হওয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক: [২] মিরপুর সাইন্স কলেজের নবীন বরণ  ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা ও মুক্তিযোদ্ধা ডা. সিরাজুল ইসলাম শিশির। তিনি বলেন, আমরা যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছিলাম তোমাদের জন্য। বৈষম্য ও শোষণের বিরুদ্ধে আমরা যুদ্ধ করার জন্য পাকিস্তান থেকে সবকিছু ছেড়ে চলে এসেছিলাম বাংলাদেশে। আর তোমাদের যুদ্ধ হচ্ছে সত্যিকারের মানুষ হওয়ার যুদ্ধ, দেশকে গড়ে তোলার জন্য যুদ্ধ। 

[৩] তিনি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির কথা উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশ আজ বিজ্ঞান  ও প্রযুক্তিতে অনেক এগিয়ে যাচ্ছে। আগামীতে এই বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির হাত ধরে আমরা এগিয়ে যাবো স্মার্ট বাংলাদেশের দিকে।

[৪] মিরপুর সাইন্স কলেজের নবীন বরণ ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শনিবার পল্লবী ২ নং ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ, ২০২৩ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫.০০ (এ+) ৫১ জন শিক্ষার্থীকে ক্রেষ্ট, ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের ১ম বর্ষ ফাইনাল পরীক্ষায় সম্মিলিত মেধা তালিকায় স্থানপ্রাপ্ত ১৫ জনকে ক্রেস্ট ও ৩ জনকে ১ লাখ ৫ হাজার টাকার শিক্ষাবৃত্তি এবং ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে (১ম ব্যাচ) থেকে ভর্তি পরীক্ষায় ২৫ জন যারা বুয়েট, মেডিকেল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পেয়েছে তাদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।  

[৫] মিরপুর সাইন্স কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন রিপনের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলেজের উপদেষ্টা এবং অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর আলম, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা (উপসচিব) মোতাকাব্বীর  আহমেদ, শহীদ আবু তালেব উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি, মিরপুর সাইন্স কলেজের উপদেষ্টা, বিশিষ্ট সমাজসেবক আলহাজ্ব মোঃ খলিলুর রহমান, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজী জহিরুল ইসলাম মানিক, মিরপুর সাইন্স কলেজের সভাপতি আলহাজ্ব বাবলু সরকার প্রমুখ। 

[৬] কলেজের নবীন শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য রাখেন দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নূর-ই জান্নাত লিয়া। শিক্ষকদের মধ্যে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ইংরেজি বিভাগের  সহকারি অধ্যাপক মনজুদার রহমান মিলটন। 

[৭] মিরপুর সাইন্স কলেজের পক্ষ থেকে অতিথিদের সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করেন কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন রিপন। এরপর একে একে সাইন্স ক্লাব, স্পোর্টস ক্লাব ও ফটোগ্রাফি ক্লাবের সাবেক প্যানেল মেম্বরদের (২য় ব্যাচ) স্ব স্ব  ক্লাবের পক্ষ থেকে সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। এরপর এইচএসসি-২০২৩ পরীক্ষায় জিপিও ৫.০০ প্রাপ্ত ৫১ জন শিক্ষার্থীকে এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পাওয়া ২৫ জন শিক্ষার্থীকে ক্রেষ্ট দেওয়া হয়। 

[৮] মিরপুর সাইন্স কলেজের শিক্ষার্থী জারিন তাসনিম, ইশরাত জাহান ইমি, আয়শা আক্তার তন্দ্রা, রাকিবুল ইসলাম, ও ওয়ালিউর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক কাজী তানভীর হাসান, ইংরেজী বিভাগের প্রভাষক ফারহানা আকতার, জীব বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক ইফতেখার আহমেদ ভুইয়া, আইসিটি বিভাগের প্রভাষক তৌফিকুল ইসলাম, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাহমুদুল হক খোকন প্রমুখ ।

[৯] অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে  মিরপুর সাইন্স কলেজের উপদেষ্টা এবং অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর আলম প্রথমেই যারা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার লাভ করেছে তাদের অভিনন্দন জানান। তিনি শির্ক্ষার্থীদের শুধু জিপিএ ৫.০০ বা ভালো ফলাফল করার মধ্যেই সীমাবদ্ধ না থাকার পরামর্শ দেন। 

[১০] সভাপতির বক্তব্যে কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন রিপন বলেন, আজকের এই অনুষ্ঠানে জ্ঞানীগুণি ব্যক্তিদের আগমন এই নবীন বরণ অনুষ্ঠানকে সার্থক ও সফল করে তুলেছে। অনেক ব্যস্ততার মধ্যে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে আসার জন্য তিনি অতিথিবৃন্দকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান। তিনি বিশেষভাবে প্রধান অতিথি বীর মুক্তিযোদ্ধা  ডা. সিরাজুল ইসলাম শিশিরের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। সম্পাদনা: এল আর বাদল

এলআরবি/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়