শিরোনাম
◈ বর্ধিত ভাড়ায় ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু ◈ বাড়ছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ◈ মা হিসেবে পূর্ণ অভিভাবকত্ব পেয়ে দেশের ইতিহাসে নাম লেখালেন অভিনেত্রী বাঁধন ◈ হিটস্ট্রোকে আরও চারজনের মৃত্যু, তাপপ্রবাহে পুড়ছে ৬ জেলা ◈ তীব্র গরম ও পানি সংকটে রাজধানীবাসী ◈ আরও তিন মামলায় জামিন পেলেন মামুনুল হক ◈ সাজেকে ট্রাক খাদে পড়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯ ◈ মিয়ানমার থেকে দেশে ফিরেছেন ১৭৩ বাংলাদেশি, বৃহস্পতিবার যাবে ২৮৮ বিজিপিসদস্য   ◈ রাজধানীতে পথচারীদের সুপেয় পানি সরবরাহ করছেন ডিএমপি ও ফায়ার সার্ভিস  ◈ তাপপ্রবাহে উচ্চ স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে শিশুরা,  বাড়তি সতর্কতার পরামর্শ ইউনিসেফের

প্রকাশিত : ০২ এপ্রিল, ২০২৪, ০৮:৫৭ রাত
আপডেট : ০৩ এপ্রিল, ২০২৪, ১১:০৭ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বুয়েটকে ছাত্র রাজনীতিমুক্ত রাখতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি শিক্ষার্থীদের আবেদন

মুযনিবীন নাইম: [২] প্রয়োজন হলে আইন সংস্কার করে ক্যাম্পাসকে ছাত্ররাজনীতির বাইরে রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবেদন জানিয়েছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের  আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার সন্ধায় বুয়েট ক্যাম্পাসে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আবেদন জানান তিনি। এসময় শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি পড়ে শোনানো হয়।

[৩] এতে বলা হয়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনার প্রতি আমাদের আকুল আবেদন, বুয়েটকে নিয়ে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, যে পলিসি গ্রহণ করেছিলেন, তার বাস্তবায়ন করুন। বুয়েটকে ছাত্ররাজনীতির বাইরে রাখুন, প্রয়োজনে আইন সংস্কার করে। কারণ সুবিচারের জন্যই আইনের সৃষ্টি। আমাদের অনুরোধ, আপনি দয়া করে আমাদের ক্যাম্পাসে আসুন; ছাত্ররাজনীতিহীন বুয়েট গত কয়েক বছর ধরে শিক্ষার্থীদের জন্য যে আদর্শ ক্যাম্পাস হয়ে উঠেছে, সেটা আমরা আপনাকে দেখাতে চাই।

[৪] চিঠিতে বলা হয়, আমরা ত্রাসের রাজনীতির মারপ্যাঁচ বুঝি না; আমরা শুধু দেশ ও দেশের মানুষকে ভালোবাসতে জানি। নিজেদের কাজ দিয়ে তা আমরা প্রমাণ করতে বদ্ধপরিকর। 

[৫] চিঠিতে বলা হয়, বিগত বছরগুলোতে আমরা বুয়েট ক্যাম্পাসে ছাত্ররাজনীতির নামে ক্ষমতার নেতিবাচক দিকগুলোই প্রত্যক্ষ করেছি। ছাত্ররাজনীতির মাধ্যমেই শিক্ষার্থীদের মাঝে সূচনা ঘটেছে আধিপত্য, দাপট, র‌্যাগিং, শিক্ষকদের অপমান, চাঁদাবাজি, শিক্ষার্থী নিপীড়ন ও খুনোখুনিতে মেতে ওঠার মতো ঘটনার। ঘটেছে হত্যাকাণ্ডের ঘটনাও।

[৫] খোলা চিঠিতে আরও বলা হয়, মৌলবাদী শক্তিকেও রুখে দিতে আমরা ঐক্যবদ্ধ। [৬] শিক্ষার্থীরা বলেন, দুঃখজনক হলেও সত্য যে কতিপয় ব্যক্তি বা গণমাধ্যমের তৎপরতায় ছাত্ররাজনীতিবিহীন বুয়েট ক্যাম্পাসকে জাতীয় চেতনার বিরোধী মতাদর্শের স্থান হিসেবে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। আমরা বুয়েটের সাধারণ শিক্ষার্থীরা দেশের সংবিধান ও প্রচলিত আইনের ব্যাপারে যথেষ্ট শ্রদ্ধাশীল। তাই দেশের যেকোনো স্থানের মতো আমাদের ক্যাম্পাসকে আমরা অবশ্যই যেকোনো ধরনের সন্ত্রাস, মৌলবাদ বা নিষিদ্ধ গোষ্ঠী থেকে নিরাপদ রাখতে সর্বদা তৎপর।

[৭] বুয়েট ক্যাম্পাসে ছাত্ররাজনীতিহীন চার বছর শিক্ষার্থীরা নির্বিঘ্নে কাটিয়েছেন বলেও খোলা চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলা হয়, ‘আমাদের মতো দেশজুড়ে লাখো শিক্ষার্থী এমন একটা ক্যাম্পাসের স্বপ্ন নিয়েই বাড়ি ছাড়ে, যেখানে তাদের ওপর অকারণে জুলুম হবে না, নির্যাতিত হতে হবে না, দিন-রাত কারও ভয়ে তটস্থ থাকতে হবে না, বাবা-মাকে দুশ্চিন্তায় চোখের পানি ফেলতে হবে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনার কাছে সবিনয়ে অনুরোধ আপনি আমাদের পাশে দাঁড়ান। আপনি সব সময় শিক্ষার্থীদের পাশে থেকেছেন। আমরা জানি এই দুর্দিনে আপনি আমাদের ছেড়ে যাবেন না। সম্পাদনা: ইকবাল খান

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়