শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৭ মে, ২০২২, ০৫:৩০ বিকাল
আপডেট : ২৭ মে, ২০২২, ০৭:১২ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বেড়েছে শুকনো মরিচের দাম

শুকনো মরিচ

রীতা গুপ্তা, ফুলবাড়ী: [২] দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে হঠাৎ করে বেড়েছে শুকনো মরিচের দাম। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রকারভেদে প্রতি কেজি শুকনো মরিচের দাম বেড়েছে ৭০ থেকে ৯০ টাকা। বাজারে সরবরাহ কম থাকায় দাম বেড়েছে বলে দাবি স্থানীয় ব্যবসায়ীদের।

[৩] ফুলবাড়ী পৌরসভার পাইকারী ও খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বগুড়ার শুকনো মরিচ এক সপ্তাহ আগে দাম ছিল ১৬০ টাকা। সেই মরিচ এখন ২২০ থেকে ২২৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। একইভাবে পঞ্চগড়ের শুকনো মরিচ কেজিতে ছিল ১৬০ টাকা এখন ২৪০ থেকে ২৫০ টাকা কেজি আর ২৮০ টাকা কেজির কারেন্ট জাতের মরিচ বিক্রি হচ্ছে ৩১৫ থেকে ৩২০ টাকা দরে। প্রকার ভেদে ৪০ থেকে শুরু করে ৯০ টাকা পর্যন্ত দাম বেড়েছে শুকনো মরিচের।

[৪] পৌর বাজারে বাজার করতে আসা উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের যোতিশ চন্দ্র রায় বলেন, আমরা খেটে খাওয়া মানুষ। দিন আনি দিন খাই। যত সমস্যা আমাদের। বাজারে মরিচ গত সপ্তাহে কিনেছি যে দামে আজ তার চেয়ে অনেক বেশি। ফলে আমাদের সংসার চালানো দায় হয়ে গেছে।’

[৫] আজাহার আলী নামের এক রিকশা চালক বলেন, শুধু মরিচ নয়, সবজি বাজারে সবপণ্যের দামই চড়া। এতে আমাদের সংসার চলা দায় হয়ে গেছে।

[৬] ফুলবাড়ী পৌর বাজারের খুচরা সবজি ব্যবসায়ী সুব্রত সরকার, সামসুল ইসলাম ও মন্টু মিয়া বলেন, পাইকারদের কাছ থেকে বেশি দামে শুকনো মরিচ কেনার কারণে বাধ্য হয়ে খুচরা বাজারে বেশি দামে শুকনো মরিচ বিক্রি করতে হচ্ছে।

[৭] ফুলবাড়ী পৌর বাজারের পাইকার সবজি ব্যবসায়ী সুমা ভাণ্ডারের স্বত্ত্বাধিকারী মোজাফ্ফর হোসেন ও শ্রী কৃষ্ণ ডাণ্ডারের স্বত্ত্বাধিকারী বিধান দত্ত বলেন, বাজারে সরবরাহ কম থাকায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বেশি দামে শুকনো মরিচ খরিদ করতে হচ্ছে বলেই বাজারে বাড়তি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। তবে সরবরাহ স্বাভাবিক হলে দামও কমে আসবে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়