প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মুরাদ হাসানের পদত্যাগ: আওয়ামী লীগের আনন্দ মিছিল

নিউজ ডেস্ক: টিভি অনুষ্ঠান ও ফোনালাপে নারীদের নিয়ে কুৎসিত মন্তব্য, ‘ধর্ষণের হুমকির’ সমালোচিত তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ আসে সোমবার রাত ১০টার দিকে। এরপর তার নির্বাচনী এলাকা জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে আনন্দ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ।

সোমবার (৬ ডিসেম্বর) রাতে তারাকান্দি শহীদ মিনার চত্বরে আনন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থকরা আনন্দ মিছিল বের করে। এ সময় তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তকে স্বাগত ও কৃতজ্ঞতা জানান।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রীতিমতো নানা প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। সাধারণ জনগণের পাশাপাশি স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও আনন্দ প্রকাশ করেছেন ফেসবুকে।

ফেসবুক প্রতিক্রিয়ায় পৌর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম বিদ্যুৎ লিখেন, ‘অবশেষে উইকেট পড়ে গেল।’

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাহবুবুর রহমান হেলাল বলেন, দলকে বিতর্কের হাত থেকে রক্ষা করতে প্রধানমন্ত্রী তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে পদত্যাগের নির্দেশনা দিয়েছেন। এটা প্রশংসনীয়।

উপজেলার প্রাণকেন্দ্র আরামনগর, সাতপোয়া, ঝালুপাড়াসহ কয়েকটি স্থানে বিভিন্ন অজ্ঞাত লোকজন পটকা ফাটিয়েছে স্থানীয়রা।

প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের কর্মী-সমর্থকদের এলাকায় দেখা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের কর্মীরা।

সম্প্রতি ফেসবুক লাইভে এক অনুষ্ঠানে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, তার ছেলে তারেক রহমান ও নাতনি জাইমা রহমানকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেন তিনি। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের নেত্রীদের নিয়েও আপত্তিকর ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে মুরাদের পদত্যাগ দাবি করেন ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন বর্তমান এবং সাবেক নেত্রী।

ইতোমধ্যে রোববার মধ্যরাতে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির সঙ্গে মুরাদের আপত্তিকর ফোনালাপ ছড়িয়ে পড়ে। ভাইরাল হওয়া সেই অডিও ক্লিপের সত্যতা নিশ্চিত করেন চিত্রনায়ক ইমন। তিনি বলেন, ফোনালাপটি সঠিক। তবে এটা দেড় বছর আগের।

সোমবার রাতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুরাদ হাসানকে মঙ্গলবারের মধ্যে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত