প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতে এখনও ‘ওমিক্রন’ শনাক্ত হয়নি

নিউজ ডেস্ক : করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন নিয়ে প্রতিদিনই উদ্বেগ বাড়ছে বিশ্বজুড়ে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও ভাইরাসের এ নতুন প্রজাতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। বাংলানিউজ

গোটা বিশ্বকে এর মোকাবিলার জন্য সব রকম প্রস্তুত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। ওমিক্রন মোকাবিলায় চূড়ান্ত সতর্ক ভারতও।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ লক্ষ্মণ মাণডভিয়া এ প্রসঙ্গে সংসদ ভবনে বলেছেন, এখন পর্যন্ত ভারতে করোনার নতুন প্রজাতি ওমিক্রন শনাক্তের হদিস মেলেনি। তবে করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে সতর্ক রয়েছে সরকার। বিদেশ থেকে ভারতে আসা প্রত্যেক যাত্রীদের ওপর কড়া নজর রাখা হচ্ছে। নেওয়া হচ্ছে সব ধরনের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা।

পাশাপাশি তিনি জানান, এখন পর্যন্ত ১৪টি দেশে ওমিক্রনের হদিস মিলেছে। তবে ভারতে সন্দেহজনক কেসগুলোর জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের সাহায্য নিচ্ছে।

আরটিপিসিআর টেস্টেও ধরা পড়ছে না করোনা নতুন এ ভ্যারিয়েন্ট। ফলে জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের সাহায্য নেওয়া হচ্ছে বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন।

এদিন দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণডভিয়া সংসদ ভবনে আরও বলেন, মহামারি চলাকালীন আমরা অনেক কিছু শিখেছি। তাই করোনার নতুন এ প্রজাতি যাতে দেশে ঢুকে পড়তে না পারে তা নিশ্চিত করার জন্য সমস্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

ভারতের স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশটির প্রতিটি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলোকে কঠোর নজরদারি, করোনার পরীক্ষা বৃদ্ধি, টিকাদানের গতি বাড়ানো ও স্বাস্থ্য পরিকাঠামো বৃদ্ধিতে আরও বেশি জোর দিতে বলেছে।

গত ২৮ নভেম্বর কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ আন্তর্জাতিক যাত্রীদের ওপর আরও কঠোরভাবে নজরদারি চালাতে পরামর্শ দিয়েছেন। আরটিপিসিআর-এর পাশাপাশি জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের জন্য নমুনাগুলো দ্রুত পাঠানোর ব্যাপারেও যথোপযুক্ত পদক্ষেপের পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত