প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইরানে হামলার জন্যে দেড়শ কোটি ডলারের অস্ত্র কিনছে ইসরায়েল, তেহরান বলছে সাহস নেই

রাশিদুল ইসলাম : [২] ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর যুদ্ধের হুমকি নাকচ করে দিয়েইরানের নৌবাহিনীর প্রধান রিয়ার অ্যাডমিরাল শাহরাম ইরানি বলেছেন, তারা দেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার সাহস ইসরাইলের নেই। নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি যুদ্ধজাহাজ ও সামরিক সরঞ্জাম নিয়ে ইরানের নৌবাহিনী যেকোনো পানিসীমায় শক্তিমত্তার সাথে উপস্থিত হতে পারে এবং ইরানের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য যেকোনো হুমকি নস্যাৎ করে দিতে সক্ষম। পারসটুডে

[৩] ইয়েমেনের আল-মাসিরা নিউজ নেটওয়ার্ককে দেয়া সাক্ষাৎকারে শাহরাম ইরানি বলেন, শত্রুর হুমকি, নিষেধাজ্ঞা এবং সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়েছে এবং তারা ইরানের সামরিক বাহিনীর সামনে শক্তিহীন হয়ে পড়েছে।

[৪] এদিকে ভিয়েনায় ইরান এবং পাঁচ জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে পরমাণু সমঝোতা ইস্যুতে আলোচনা ভিন্নখাতে নেওয়ার জন্যে ইসরায়েলের যুদ্ধমন্ত্রী বেনি গান্তজ বলেছেন, ইরানকে কোনভাবেই পরমাণু বোমা বানাতে দেয়া হবে না প্রয়োজনে দেশটির বিরুদ্ধে কূটনীতির অংশ হিসেবে সামরিক ব্যবস্থাকে বেছে নিতে হবে।

[৫] ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান মোহাম্মাদ ইসলামি তার দেশের পরমাণু স্থাপনাগুলোতে হামলা চালানোর হুমকির ব্যাপারে ইসরায়েলকে হুঁশিয়ার করে বলেছেন, তেহরানকে হুমকি দেয়ার আগে তেল আবিব যেন তার দুর্বল সক্ষমতার কথা বিবেচনা করে।

[৬] টাইমস অব ইসরায়েল বলছে, ইরানের পরমাণু স্থাপনাগুলোতে হামলা চালানোর জন্য তেল আবিব ৫০০ কোটি শেকেল বা দেড়শ’ কোটি ডলার মূল্যের অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম কেনার পরিকল্পনা করেছে।

[৭] ইরানের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা পরিষদের সচিব আলী শামখানি বলেন, এ ধরনের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করলে তেহরান যে দাঁতভাঙা জবাব দেবে তার বিশাল ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার বাজেটও যেন ইসরায়েল প্রস্তুত করে রাখে। তিনি বলেন, দেড়শ’ কোটি ডলার দিয়ে অস্ত্র কেনার আগে ইরানের হামলার ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার জন্য ইসরায়েল যেন আগেভাগে কয়েক হাজার কোটি ডলারের বাজেট বরাদ্দ দিয়ে রাখে।

[৮] ইরানের সেনাপ্রধান বলেছেন, তার দেশের পরমাণু স্থাপনাগুলো হামলা চালানোর পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করলে তা হবে ইসরায়েলের শেষ নিঃশ্বাস।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত