প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মেট্রো রেল প্রকল্পের মালামাল চুরি, আটক ৬

সুজন কৈরী: [২] রাজধানীর তুরাগ নতুন বাজার খালপাড় এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার রাতে মেট্রো রেল প্রকল্পের মালামাল চুরি চক্রের ৬ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৪। এ সময় তাদের কাছ থেকে চুরি করা ৮ হাজার ৭৭০ কেজি বিভিন্ন ধরনের লোহাসহ একটি ট্রাক জব্দ করা হয়েছে।

[৩] আটকরা হলেন- চক্রের মূলহোতা হাবিবুর রহমান (৩০), মারুফুল ইসলাম (৩৭), বোরহান উদ্দিন (৪৫), সুরুজ (৫০), রুবেল (৩৩) ও জহিরুল ইসলাম ওরফে রিয়াদ (৩২)।

[৪] শুক্রবার র‌্যাব-৪ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) সহকারী পুলিশ সুপার মো. মাজহারুল ইসলাম বলেন, আটকরা দীর্ঘদিন ধরে ঢাকা মেট্রো রেল প্রকল্প ছাড়াও সরকারের আরও গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পের অব্যবহৃত লোহা, ইস্পাত, তার, মেশিন কৌশলে চুরি করতেন।

[৫] আটকদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, তারা একটি বিশেষ সংঘবদ্ধ চোরাকারবারী চক্রের সঙ্গেও জড়িত। চোরাই লোহা, ইস্পাত, তার ও মেশিন বিভিন্ন ভাঙারি ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করতো চক্রটি। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

[৬] র‌্যাব জানায়, গত কয়েক বছর ধরে ঢাকাসহ আশপাশেনর জেলায় সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্প পরিচালিত হচ্ছে। এসব প্রকল্পের কার্যক্রম চলাকালীন সময়ে প্রয়োজনীয় বিভিন্ন উপকরন স্তুপ আকারে থাকাকালে চোরাকারবারি দল কৌশলে সুযোগ মতো চুরি করে তাদের পছন্দ মতো গোপন একটি জায়গায় নিয়ে যেতো। সেগুলো সহজে বহনযোগ্য করে বিভিন্ন ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করতো।

[৭] আটক হাবিবুর রহমান এই চক্রটির মূলহোতা। সহযোগী সুরুজ, রুবেল ও জহিরুল ইসলামদের সহায়তায় মেট্রো রেলসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন প্রকল্পের অপ্রয়োজনীয় লোহা, ইস্পাত, তার, মেশিন চুরি করে গোপন স্থানে নিজেদের হেফাজতে রাখতেন। পরে সুযোগ বুঝে চোরাই মালগুলো কেটে বহনযোগ্য করে মারুফুল ও বোরহানের কাছে বিক্রি করতেন। তারা কৌশলে রাতের আধারে সুবিধা জনক ও বহন যোগ্য সাইজে রুপান্তরিত করে ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থানের পুনঃলোহা তৈরির কারখানায় বিক্রি করতেন। এভাবে চোরাই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে মেট্রো রেলসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন প্রকল্পের অসংখ্য পরিমানের অব্যবহৃত লোহা, ইস্পাত, তার, মেশিন ও খুচরা মালামাল কৌশলে চুরি করে তা কেটে বহন যোগ্য করে বিক্রি করে প্রচুর অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত