প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাল্যবিয়ের ঝুঁকিতে থাকা সহস্রাধিক অভিভাবকের সাথে জেলা প্রশাসকের মতবিনিময়

সৌরভ ঘোষ: বাল্য বিয়ের অধিক ঝুঁকিতে থাকা শিশুর অভিভাবকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক রেজাউল করিম। আজ মঙ্গলবার কুড়িগ্রাম রাজারহাট উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রায় সহস্রাধিক অভিভাবকদের সাথে মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়।

রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরে তাসনিমের সভাপতিত্বে এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান জাহিদ সোহরাওয়ার্দি বাপ্পি, সহকারী কমিশনার আকলিমা মুন্নি, রাজারহাট থানার ওসি তদন্ত পবিত্র কুমার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আশিকুল ইসলাম মন্ডল, প্লান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের স্পেশালিষ্ট নুরে আলম জুলফিকার আলী হানিফ, আরডিআরএস বাংলাদেশের প্রকল্প কর্মকর্তা রেজওয়ান সাথিল, উপজেলা সমন্বয়কারী মোসলেম উদ্দিন প্রমূখ।

আয়োজকরা জানান, প্রকাশিত জরিপে কুড়িগ্রামের ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত জেলায় ২১ হাজার ১০০টি বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এরমধ্যে নিবন্ধিত বিয়ের সংখ্যা-১৭ হাজার ৯৮৪টি এবং অনিবন্ধিত বিয়ের সংখ্যা-৩ হাজার ১১১টি।

জেলার ৯টি উপজেলায় বাল্য বিয়ে হয়েছে ২ হাজার ৯৫৩টি। বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ হয়েছে ১ হাজার ১২০টি। এরমধ্যে কুড়িগ্রাম সদর-৭০২টি, রাজারহাট-৭৩টি, উলিপুর-২৫৯টি, চিলমারী-১৪০টি, রৌমারী-৮৪টি, রাজিবপুর-৪৯টি, নাগেশ্বরী-১১২৮টি, ফুলবাড়ি-২৯১টি, ভূরুঙ্গামারীতে-২২৭টি বাল্য বিয়ে হয়েছে।

সভায় আয়োজকরা আরো জানান, যদিও করোনার লকডাউন চলাকালিন সময় জরিপের কার্যক্রম কিছুটা স্থবিরতা হয়ে পড়েছে। ফলে জেলার বাল্যবিয়ের হার বাস্তবতার আলোকে আরো অনেক বেশি। এ কারণেই বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে এবং বাল্যবিয়ের শিকার হওয়ার সম্ভাবনা শিশুদের অভিভাবকদের বাল্যবিয়ের কুফল ও আইনী বিষয় বোঝেতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আয়োহিত মতবিনিময় সভায় সহযোগিতা করে উপজেরা তথ্য সেবা কার্যালয় ও বিল্ডিং বেটার ফিউচর ফর গার্লস (বিবিএফজি) প্রজেক্ট।

আয়োজনে অভিভাবকদের সাথে কাজী, পুরোহিত, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, সাংবাদিক জনপ্রতিনিধিরাও অংশ নেন। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

 

সর্বাধিক পঠিত