প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অধ্যাপক ডা. মো. তাজুল ইসলাম: হেলেন, ট্রয়, আয়ো এবং মিডিয়া কাহিনি

অধ্যাপক ডা. মো. তাজুল ইসলাম
ফিনিসিয়রা এসেছিলো ভারতীয় সাগরের উপক‚লীয় এলাকা থেকে। তারা মিসর ও আসিরিয়ার মালপত্র বোঝাই করে বিভিন্ন বন্দরে তেজারতি/সওদাগরি করতো। এসব স্থানের মধ্যে আর্গোসও ছিলো। এই আর্গোসে বর্তমান কালের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার মতো একটি মেলা বসতো। মেলা চলতো ৫-৬ দিন। একবার মেলা শেষে একদল স্ত্রীলোক সমুদ্র তীরে নামে, তাদের মধ্যে রাজা ইনেকাসের কন্যা রাজকুমারী আয়োও ছিলো। গলুইয়ের কাছে দাঁড়িয়ে স্ত্রীলোকেরা ইচ্ছামতো কেনাকাটা করছে এমন সময় ফিনিসিয় নাবিকরা আয়োসহ কয়েকজন নারীকে ধরে ফেলে। জাহাজে করে তাদের মিসরে নেওয়া হয়। এর প্রতিশোধ নিতে গ্রীকরা ফিনিসিয় বন্দর টায়ার থেকে তাদের রাজার কন্যা ইউরোপাকে নিয়ে পালিয়ে যায়। এছাড়া গ্রীকরা সশস্ত্র জাহাজে করে ঈয়া বন্দরে উপস্থিত হয়। সওদাগরি করে ফেরার সময় রাজার কন্যা মিডিয়াকেও অপহরণ করে নিয়ে আসে।

রাজা এজন্য গ্রীকদের নিকট ক্ষতিপূরণ চায় ও রাজকুমারীকে ফেরত চান। কিন্তু গ্রীকরা বলে আর্গোস থেকে আয়োকে অপহরণের জন্য তারাও কোনো ক্ষতিপূরণ পায়নি। এর ৪০-৫০ বছর পর রাজা প্রায়ামের পুত্র প্যারিস এসব বৃত্তান্ত শুনে গ্রীক থেকে একজন স্ত্রী অপহরণ করে আনবে বলে স্থির করেন। এভাবে সে হেলেনকে অপহরণ করে। এ অপকর্মের জন্য গ্রীকরা এর জবাব চায় ও হেলেনকে ফেরত দিতে বলে। জবাবে তারা মিডিয়াকে অপহরণের কথা উল্লেখ করে বলে কৈফিয়ত দেওয়ার প্রশ্ন ওঠে না। তখন গ্রীকরা বিরাট ফৌজ তৈরি করে হামলা চালায় ও ট্রয়সহ প্রায়ামের (প্যারিসের বাবার) রাজত্ব ধ্বংস করে দেয়। এ থেকে পারস্য তথা এশীয়রা গ্রীকদের দুশমন হয়ে দাঁড়ায়। যার ফলে পারস্যের মহান স¤্রাট সাইরাস গ্রীক নেতা ক্রিসাসকে পরাজিত করে গ্রীক অধিকার করে নেয়। সে আরেক কাহিনি যা পরে বলবো। লেখক : মনোবিদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত