প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] গাজীপুরে টিকাদান কেন্দ্রে মারামারি, টিকা দেওয়া বন্ধ

এ এইচ সবুজ: [২] গাজীপুরে করোনা ভাইরাসের টিকাদান কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা শুরু হলে টিকা দেওয়া কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়। গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দ্বিতীয় ডোজের করোনা টিকাদান কার্যক্রম চলাকালে শুরু হয় বিশৃঙ্খলা এবং হাতাহাতি। এতেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে টিকাদান কার্যক্রম।

[২] বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

[৩] প্রত্যক্ষদর্শী ও আনসার সদস্যরা জানান, সকাল থেকে করোনার দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিতে আসেন কয়েক হাজার মানুষ। এসময় লাইনে দাঁড়িয়ে পর্যায়ক্রমে টিকা দেওয়া হচ্ছিলো। লাইন দীর্ঘ হওয়ায় কয়েক’শ লোক নিয়ম ভেঙে টিকা নিতে সামনে চলে আসে। এতে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা লোকজনের সঙ্গে শুরু হয় মারামারি। পরে পরিস্থিতি খারাপ দেখে টিকা দেওয়া বন্ধ করা হয়।

[৪] আনসার প্লাটুন কমান্ডার মঞ্জুরুল রহমান রঞ্জু জানান, আমরা সকাল থেকে এখানে দায়িত্ব পালন করতেছি। আমাদের ৫০ জন সদস্য কাজ করছেন। হঠাৎ বিশৃঙ্খলা শুরু হওয়ায় টিকা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এখানে যারা স্লিপ লিখে তাদেরকেও পাওয়া যাচ্ছে না। এদিকে, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে এটি তাদের দায়িত্ব না। এটি সিভিল সার্জন ও সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব। এসব বলে তো সাধারণ মানুষকে বোঝানো যায় না।

[৫] গাজীপুর সিটি করপোরেশন বাসন এলাকা থেকে টিকা নিতে আসেন ফয়সাল আহমেদ। তিনি জানান, আমি চাকরি করি। ভোর সাড়ে ৬টায় এসে লাইনে দাঁড়িয়ে আছি। এখন বলছে টিকা দেবে না। বার বার অফিস ছুটি নিয়ে আসা কষ্টকর।
জয়দেবপুরের ছায়াবীথি এলাকার বাসিন্দা তাবাচ্ছুম জানান, এসএমএস পেয়েছি এজন্য সকাল ৭টায় টিকা নিতে এসেছি। এতোক্ষণ রোদের মধ্যে দাঁড়িয়ে ছিলাম। এখন টিকা দেওয়া বন্ধ করে দিলো।’

[৬] এ বিষয়ে গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডা: মো: খায়রুজ্জামান জানান, আমরা গণটিকা দেবো ঠিক আছে। শুধু দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেবো। কিন্তু কয়েক হাজার লোক একসঙ্গে এসেছে।

[৭] তিনি আরো জানান, আমরা একসঙ্গে সবাইকে দিতে পারবো না। তবে নিরাশ হওয়ার কিছু নেই। পর্যায়ক্রমে সবাই পাবে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আমরা পুলিশের সহযোগিতা চেয়েছি।

সর্বাধিক পঠিত