প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাসাবাড়িতে আধুনিক সেপটিক ট্যাংক ও সোক ওয়েল স্থাপন করতে হবে, পরিশোধন ব্যবস্থা সচল রাখতে হবে: মেয়র আতিক

সুজিৎ নন্দী: [২] ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, অভিজাত এলাকায় সেপটিক ট্যাংকবিহীন ভবনে ৬ মাসের মধ্যে কার্যকর সেপটিক ট্যাংক নিশ্চিত করতে না পারলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

[৩] মেয়র বলেন, বনানীর ১৮ নম্বর রোডের ২৩, ৪২ ও ৪৪ নম্বর বাড়ির কোনটিতেই সেপটিক ট্যাংক পাওয়া যায়নি, ইতোমধ্যে পরিদর্শনকৃত ২১টি ভবনের কোনটিতেই সেপটিক ট্যাংক কিংবা সোক ওয়েল কিছুই ছিল না।

[৪] মঙ্গলবার গুলশান-বনানী এলাকায় পয়ঃবর্জ্য নিষ্কাশন সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম সরেজমিনে পরিদর্শনকালে তিনি একথা বলেন।

[৫] তিনি বলেন, অপরিকল্পিত ঢাকার অসংখ্য বাসাবাড়ি এমনকি গুলশান, বনানী ও বারিধারার মত অভিজাত এলাকার অধিকাংশ ভবনেই কার্যকর সেপটিক ট্যাংক ও সোক ওয়েল না থাকায় অপরিশোধিত পয়ঃবর্জ্য সরাসরি ড্রেন কিংবা খালে পতিত হওয়ায় জলাশয়ের পানিসহ সার্বিক পরিবেশ দূষিত হচ্ছে।

[৬] মেয়র আরও বলেন, জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ডিএনসিসির পক্ষ থেকে একটি ডিজিটাল প্রদর্শনীর আয়োজন করা হবে।

[৭] সকালে, আতিকুল ইসলাম রাজধানীর কাওরান বাজারে ‘নিরাপদ স্যানিটেশনঃ ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

[৮] এ সময় তিনি বলেন, নগরসহ দেশকে রক্ষা করার দায়িত্ব সকলের, নিজ নিজ অবস্থানে থেকে এ বিষয়ে সকলকে দায়িত্ব পালন করতে হবে, সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। যেসব ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিংয়ের ব্যবস্থা থাকবে, সেসব ভবন মালিকদেরকে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত দেয়া হবে। সম্পাদনা : ভিকটর রোজারিও

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত