প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শুভ জন্মদিন অপর্ণা ঘোষ

বাবলু ভট্টাচার্য : নানা চরিত্রে অসংখ্য দৃশ্যপটে নিজেকে মেলে ধরেছেন। সবাই যখন তথাকথিত বাণিজ্যিক ধারার চলচ্চিত্রে নিজেকে মেলে ধরতে ব্যস্ত, তখন তার দৃষ্টি কেবল ভালো গল্প ও চরিত্রনির্ভর চলচ্চিত্রের দিকে। তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী অপর্ণা ঘোষ।

ছেলেবেলা কেটেছে রাঙামাটি এবং চট্টগ্রাম শহরে। তিনি রাঙ্গামাটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন।
তার বাবা অলোক ঘোষ একজন মঞ্চ অভিনেতা ছিলেন। অপর্ণা শুরুতে মঞ্চে অভিনয় করতেন। বাবার অভিনয়ে আকৃষ্ট হয়ে ২০০৩ সালের দিকে নান্দিকার নামে চট্টগ্রামের একটি স্থানীয় থিয়েটার দলে মঞ্চকর্মী হিসেবে যোগ দেন তিনি। তার প্রথম অভিনীত এস এম সোলায়মানের কোর্ট মার্শাল।

এরপর মঞ্চে উইলিয়াম শেকসপিয়র রচিত ওথেলো, দ্য মার্চেন্ট অব ভেনিস, পাপপূর্ণ সহ একাধিক মঞ্চ নাটকে অভিনয় করেন। নান্দিকারের সঙ্গে তিনি এছাড়াও পাপ-পুণ্য, জ্ঞানবৃক্ষের ফল, গোড়ায় গলদ ইত্যাদি নাটকে অভিনয় করেন।

২০০৬ সালের দিকে তিনি ঢাকায় আসেন। সে বছরই লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় সেরা চারের একজন নির্বাচিত হন অপর্ণা। পরবর্তীকালে ‘তবুও ভালোবাসি’ নাটকের মাধ্যমে ছোট পর্দায় অভিষেক ঘটান।

অপর্ণা বসুন্ধরা কর্পোরেট, প্রাণ সস, অটবি, নিডো, প্যরাসুট নারিকেল তেল, হোয়াইট প্লাস টুথপেস্ট ইত্যাদি বাণিজ্যিক পণ্যের টেলিভিশন বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন ব্যান্ডের মডেল হিসেবে কাজ করেছেন অপর্ণা।

২০০৯ সাল থেকে তিনি স্থায়ীভাবে ঢাকায় বসবাস করছেন। ২০১৬ সালে মাছরাঙা টেলিভিশনে রূপ কথা নামে একটি সৌন্দর্যচর্চাবিষয়ক অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন তিনি।

২০০৯ সালে মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ‘থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার’ চলচ্চিত্র একটি গৌণ চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে তার বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে।

২০১৩ সালে তিনি গাজী রাকায়েত পরিচালিত ‘মৃত্তিকা মায়া’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। ২০১৪ সালে তিনি জাহিদুর রহিম অঞ্জন পরিচালিত ‘মেঘমল্লার’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

অপর্ণা ঘোষ অভিনীত অন্যান্য চলচ্চিত্রঃ ‘সুতপার ঠিকানা’, ‘দর্পণ’, ‘বিসর্জন’, ‘ভুবন মাঝি’, ‘টু বি কন্টিনিউড…’, ‘লিলিথ’, ‘গন্ডি’, ‘অন্ত্যোষ্টিক্রিয়া’।

শুধু বড় পর্দায়ই নয়, ছোট পর্দায়ও অপর্ণা রেখেছেন ব্যতিক্রমী কাজের ছাপ। দীর্ঘ এক যুগেরও বেশি ক্যারিয়ারে তিনি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম, হুমায়ূন আহমেদের মতো খ্যাতিমান সাহিত্যিকের গল্প-উপন্যাসের নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করে নিজের জাত চিনিয়েছেন।

২০০৬ সালে অপর্ণার মিডিয়া ক্যারিয়ার শুরু। ওই বছর লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় ছিলেন সেরা পাঁচে। অভিনয় করেন অসংখ্য দর্শকপ্রিয় নাটক- টেলিছবিতে। এরপর বাকি ইতিহাস তো সবারই জানা। বিনিময়ে পেয়েছেন রাষ্ট্রীয় সম্মাননা, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ অগণিত দর্শকের ভালোবাসা।

অপর্ণা ঘোষ ২৫ সেপ্টেম্বর রাঙামাটিতে জন্মগ্রহণ করেন। ফেসবুক থেকে

সর্বাধিক পঠিত