প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ‘স্কুলে যেতে চাই, আগামী প্রজন্মকে কী শেখাব!’ প্রশ্ন আফগান কিশোরীর (ভিডিও)

রাশিদুল ইসলাম : [২] ‘আমরা আমাদের দেশের জন্য কিছু করার সুযোগ পেয়েছি। আমরা সমানাধিকার দাবি করি। কারা এই তালিবান যারা সেই অধিকার ছিনিয়ে নিচ্ছে! আমি স্কুলে যেতে চাই!’ দৃপ্ত কণ্ঠে, চড়া সুরে একটানা কথাগুলি বলে চলেছে কিশোরী। কালো পোশাক পরা, মাথা ঢাকা সাদা ওড়না দিয়ে। তার চারপাশে দাঁড়িয়ে আরও কিছু ছাত্রছাত্রী, হাতে তাদের পোস্টার। কারও হাতে লেখা, ‘ফ্রি আফগানিস্তান’, কেউ বা দাবি করছে, ‘উই ওয়ান্ট ফ্রিডম’। পেছনে পাহাড়ের সারি যেন অভিবাদন জানাচ্ছে কিশোরীকে, যেন সাহস ও শক্তির প্রতীক হয়ে ঘিরে রেখেছে ছোট্ট পড়ুয়াদের দলকে। দি ওয়াল

[৩] এমনই এক অসামান্য ভিডিও নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে সম্প্রতি। হু হু করে ভাইরাল হতে শুরু করেছে সেটি। কোন জায়গা তা অবশ্য জানা যায়নি, যেমন জানা যায়নি বক্তৃতা রাখা মেয়েটির নাম-পরিচয়। তবে এক্ষেত্রে তার নাম বা পরিচয় মুখ্য নয়, মুখ্য হল তার বক্তব্যটুকুই। যেটি এখন আফগানিস্তানের হাজার হাজার কিশোরী গলা তুলে চিৎকার করে বলতে চাইছে, সেটিই অকুতোভয়ে বলে চলেছে ভিডিওর মেয়েটি।

[৪] আফগানিস্তান তালিবান দখলে চলে যাওয়ার পর থেকেই সে দেশের নারীসুরক্ষা ও অধিকার প্রশ্নের মুখে। কাবুল-সহ আফগানিস্তানের প্রতিটি শহরে বন্ধ হয়ে গিয়েছে স্কুল। তালিবান সরকার জানিয়েছে, মাদ্রাসা-সহ স্কুলগুলি এবার খোলা যেতে পারে।

[৫] আফগান সাংবাদিক বিলাল সারওয়ারির শেয়ার করা ভিডিওটিতে দেখা গেছে, মেয়েটি বলছে আজকের মেয়েরা, কালকের মা হয়ে উঠবে। তারা যদি শিক্ষিত না হয়, তারা সন্তানদের কী শেখাবে! আমি এই প্রজন্মের মেয়ে। আমি কি ঘরে বসে খাব আর ঘুমোব বলে জন্মেছি? আমি সিকুলে যেতে চাই। আমি দেশের উন্নতির জন্য কিছু করতে চাই। শিক্ষা ছাড়া একটা দেশ উন্নত হবে কী করে! যদি আমরা শিক্ষিত না হই, আমাদের পরের প্রজন্ম তাহলে কী শিখবে! আমরা শিক্ষিত না হলে সারা দুনিয়ায় আমাদের কোনও দামই থাকবে না!

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত