প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মনগড়া যুক্তি দেখিয়ে ইংল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিল করে ইসিবি, বললেন আথারটন

স্পোর্টস ডেস্ক: [২] ভীষণ ক্ষেপেছেন ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাইক আথারটন। সব ঠিকঠাক থাকার পর নিউজিল্যান্ডের মতো ইংল্যান্ড পাকিস্তান সফর বাতিল করায় উত্তেজিত তিনি। সফর বাতিলের পেছনে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) যে কারণ দেখিয়েছে তা বোধগম্য হচ্ছে না আথারটনের।

[৩] দীর্ঘ কয়েক বছর পর নিরাপত্তা শঙ্কা দূর করে পাকিস্তান খেলতে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। কিন্তু গত শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) প্রথম ওয়ানডের কয়েক ঘণ্টা আগে নিরাপত্তা সংক্রান্ত ঝুঁকির কথা বলে সফর বাতিল করে দেয় তারা। ১৬ বছর পর অক্টোবরে ইংল্যান্ডেরও পাকিস্তান সফরের সূচি ছিল। পুরুষ ও নারী উভয় দলের খেলার সব কিছুই চূড়ান্ত হয়ে যায়। কিন্তু নিউজিল্যান্ড সিরিজ বাতিল করায় এই সিরিজ নিয়েও আচমকা শঙ্কা তৈরি হয়। সেটা সত্যি করে সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিবৃতিতে ইসিবি বাতিল করে দেয় পাকিস্তান সফর।

[৪] বিবৃতিতে তারা সরাসরি নিরাপত্তা ঝুঁকি না বলে ভ্রমণ সতর্কতা ও কোভিড পরিস্থিতিতে ক্রিকেটারদের মানসিক চাপের কথা উল্লেখ করে। ইংল্যান্ডের গণমাধ্যম দ্য টাইমসে লেখা কলামে আথারটন কড়া সমালোচনা করেছেন নিজ দেশের বোর্ডের, নিরাপত্তার কারণে সফর বাতিল করলে সেটা বোধগম্য হবে। কিন্তু বিবৃতিতে তারা কোভিড পরিস্থিতির ক্লান্তির কথাও বলেছে। তাহলে বলতে হয় গত গ্রীষ্মে মহামারির চরম সময়ে ইংল্যান্ডে সফরকরা দলগুলো কী পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে গিয়েছে। তাদের সফর আর্থিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা করেছিল।

[৫] করোনার চরম বাজে পরিস্থিতিতে কঠোর কোয়ারেন্টিন পালন করে ইংল্যান্ডে খেলেছিল পাকিস্তান। আথারটন মনে করিয়ে দিয়েছেন সেটি, পাকিস্তান যখন ইংল্যান্ড সফর করে তখন ইংল্যান্ডের কোভিডে মৃত্যুর হার ছিল বিশ্বে তৃতীয় সর্বোচ্চ, যা পাকিস্তানের চেয়ে ১৫০ গুণ বেশি। এতকিছুর পরও পাকিস্তান এসেছিল। হয়ত তারা সফর করার কারণে অনেক পেশাদার ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফ তাদের চাকরি ধরে রাখতে পেরেছিল।

[৬] গত বছর করোনার কারণে ইংল্যান্ডে খেলতে যায়নি দক্ষিণ আফ্রিকায়। সম্প্রতি কোচ ও সাপোর্ট স্টাফ করোনা আক্রান্ত হওয়ায় ভারত খেলেনি ম্যানচেস্টারে পঞ্চম টেস্ট। এই দুই ঘটনার চেয়েও ইসিবির পাকিস্তান সফর বাতিলকে বাজে বলে আখ্যা দিয়েছেন আথারটন, এই সিদ্ধান্তটি গত বছর ইংল্যান্ডের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর ও ভারতের ম্যানচেস্টার টেস্ট বাতিলের চেয়েও বাজে। যদিও এই দুটি ব্যাপার ছিল করোনাভাইরাসের কারণে, এর বিরুদ্ধে কথা বলা যায় না। সেগুলো বোধগম্য ছিল কিন্তু এটি একেবারে নয়। – দ্য টাইমস/ ডেইলিস্টার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত