প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব, ‘স্বল্পমেয়াদী নেতা’ বলছেন বিশ্লেষকরা

লিহান লিমা: [২] গত কয়েক দিনের রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার অবসান ঘটিয়ে শনিবার মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন মি.ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব (৬১)। ইউনাইটেড মালয়েসন্যাশনাল অর্গানাইজেশন (ইউএমএনও) এর এই রাজনীতিবিদ দেশটির প্রাসাদে রাজা আল সুলতান আবদুল্লাহ রিয়াতউদ্দিন আল-মুস্তফা বিল্লাহ শাহের সামনে শপথ গ্রহণ করেন। আল জাজিরা

[৩]ইসমাইস সাবরি সোমবার পদত্যাগ করা প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দীন ইয়াসিনের পেরিকতান ন্যাশনাল (পিএন) সরকারে উপ-প্রধানমন্ত্রী এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী ছিলেন। ২০১৯ সালে জাতিগত উত্তেজনা ছড়িয়ে তিনি সমালেচিত হন। ওই সময় তিনি তৎকালীন শাসক গোষ্ঠির বিরুদ্ধে মুসলিমদের জিহাদের ডাক দেন এবং তাদের ইসলামবিরোধী বলে মন্তব্য করেন।

[৪] গত সোমবার পার্লমেন্টের নিম্নকক্ষে সমর্থন হারিয়ে মুহিউদ্দীন ইয়াসিনের পদত্যাগ পুত্রজায়াকে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার মধ্যে ফেলে দেয়। বুধবার মালয়েশিয়ার রাজা পার্লামেন্টের সব সদস্যের কাছ থেকে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীর নাম প্রস্তাব দেয়ার আহ্বান জানান। পার্লামেন্টের ২২০ জনের মধ্যে ১১৪জন আইনপ্রণেতা ইয়াকুবকে প্রধানমন্ত্রীর প্রার্থী হিসেবে ভোট দেন। অন্যদিকে তার বিরোধী প্রার্থী আনোয়ার ইব্রাহিমকে সমর্থন করেছিলেন ১০৫জন।

[৫] রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, স্ট্যাপ-গ্যাপ নেতা ইসমাইল সাবরি বিশৃঙ্খল রাজনৈতিক পরিস্থিতি সামলাতে পারবেন এমন প্রত্যাশা ক্ষীণ। তিনি বড়জোর পরবর্তী সাধারণ নির্বাচন পর্যন্ত ক্ষমতায় টিকতে পারবেন। ২০১৮ সালে তার দল ইউএমএনও দুর্নীতির কারণেই জনগণের ভোটে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত হয়েছিলো। কিন্তু মুহিউদ্দীন সরকারের অংশ হিসেবে নির্বাচন ছাড়াই আবার পার্লামেন্টে পা রাখতে সক্ষম হয়। তাই মহামারীর এই টালমাটাল পরিস্থিতিতে তার সরকার জনগণের ক্ষোভে পরিণত হতে পারে।

সর্বাধিক পঠিত