প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৩ বিলিয়ন ডলারের যুদ্ধ বিমান বিক্রির অর্ডার পেল রাশিয়ার রসটেক

রাশিদ রিয়াজ : রসটেক রাশিয়ার ১৪টি প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম তৈরির নেতৃস্থানীয়। এমএকেএস বিমান প্রদর্শনীতে কোম্পানিটি এসব বিমান বিক্রির অর্ডার পায়। অর্ডার পাওয়া ১৬১টি যুদ্ধ বিমানের মধ্যে ৫৮টি সুখই সুপারজেট ১০০ এবং ১৯টি আইএল-১১৪-৩০০ বিমান রয়েছে। রয়েছে ৮৪টি হেলিকপ্টার। এসব হেলিকপ্টারের মডেলগুলো হচ্ছে এমআই-১৭১এথ্রি, কেএ-৬২, এমআই-৩৮, এমআই-৮ ও আনসাট। রসটেকের সিইও সের্গেই চেমেজভ এ তথ্য জানান। প্রদর্শনীতে রসটেক ৫শ পণ্য নিয়ে গিয়েছিল। এসব পণ্যের মধ্যে ৫০টি ছিল উন্নত মডেলের। বিমান, হেলিকপ্টার, ড্রোন, যন্ত্রাংশ ও উপকরণ ছিল অন্যতম। মস্কোর কাছে জুকোভস্কিতে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। আরটি

সের্গেই চেমেজভ বলেন প্রদর্শনীতে আমাদের কাছে যেসব পণ্যের অর্ডার এসেছে তা আশাতীত। চুক্তি অনুযায়ী ২৩০ বিলিয়ন রুবলের পণ্য বিক্রি করা সম্ভব হবে। রুশ কোম্পানিগুলো আন্তর্জাতিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডলারের পরিবর্তে রুবলকে বেছে নিচ্ছে। বছরে ১৫ বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র বিক্রি করে রাশিয়া। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা পণ্য বিক্রির লেনদেনে ডলারের অংশীদারিত্ব শূন্যতে নেমে এসেছে। একই প্রদর্শনীতে রাশিয়ার সরকারি অস্ত্র কোম্পানি রসোবারোনেক্সপোর্ট ১৩টি অস্ত্র বিক্রির চুক্তি করতে সমর্থ হয়। বিমান, হেলিকপ্টার, রাডার, আর্মার্ড ও যান মিলে ১.৩ বিলিয়ন ডলারের পণ্য বিক্রি করবে কোম্পানিটি। রাশিয়ার সুখই বিমানের সর্বশেষ সংস্করণকে মার্কিন যুদ্ধ বিমান এফ-৩৫এর সমকক্ষ বা তারচেয়ে বেশি ক্ষমতাসম্পন্ন মনে করা হচ্ছে। অথচ এফ-৩৫এর চেয়ে সুখই বিমানের দাম সস্তা। রসোবারোনেক্সপোর্ট’এর সিইও আলেকজান্ডার মিখায়েভ সাংবাদিকদের বলেন আমাদের অধিকাংশ পণ্য বিক্রির ক্ষেত্রে লেনদেন মার্কিন ডলারের পরিবর্তে হয় রুবল বা ক্রেতা দেশের মুদ্রায় করা হচ্ছে। একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারিতে ডলার বিনিয়োগের পরিবর্তে বরং তা প্রত্যাহার করে নেওয়া হচ্ছে। রাশিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও ন্যাশনাল ওয়েলথ ফান্ড ডলারে লেনদেন শুন্যে নামিয়ে এনেছে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত