প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুর্নীতি রোধ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি হচ্ছে রায়িসির লক্ষ্য

রাশিদ রিয়াজ : ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভূমিধ্বস বিজয় পেয়েছেন ইব্রাহিম রায়িসি। একজন আলেম হলেও তিনি অর্থনৈতিক মুক্তি সংগ্রামকে প্রাধান্য দিচ্ছেন। তার নির্বাচনী শ্লোগান ছিল ‘নন্দিত প্রশাসন, শক্তিশালী ইরান’। ইরানের বিচার বিভাগের প্রধান হিসেবে মানবাধিকার লঙ্ঘণের অভিযোগ এনে যুক্তরাষ্ট্র তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। ইব্রাহিম রায়িসি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও নির্বাচনে তিনি রক্ষণশীল শিবিরের ব্যাপক সমর্থন পান। দুর্নীতি ও দারিদ্রের বিরুদ্ধে লড়াই, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও মূল্যস্ফীতি প্রতিরোধ ছিল তার নির্বাচনী অঙ্গীকার। নির্বাচনে ২৮.৬ মিলিয়ন ভোটার ভোট দেয়ার পর প্রায় ৯০ শতাংশ ভোট গণনা করে দেখা যায় রাইসি ১৭.৮ মিলিয়ন ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোহসেন রেজায়ি পেয়েছেন ৩.৩ মিলিয়ন ভোট। আরেক প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী নাসের হেম্মাতি ২.৪ মিলিয়ন ও হাশেমি পেয়েছেন ১ মিলিয়ন ভোট। রায়িসি ইরানের একজন প্রখ্যাত আলেম। তার আগে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসার রুহানি ৮ বছর ক্ষমতায় ছিলেন তবে অর্থনৈতিক খাতে ইরানে ব্যাপক সংস্কারের জোরালো দাবি ওঠে। ৯০ শতাংশ ফলাফল গণনায় দেখা যায় রায়িসি ৬২ শতাংশ ভোট পেয়েছেন।

নারীদের জন্যে উপযুক্ত কাজের পরিবেশ সৃষ্টি, ইসরায়েলের সঙ্গে আপোষহীন সম্পর্ক ও পশ্চিমা ধরনের বিনিয়োগের চেয়ে কৃষিতে অধিক মনোযোগ দেওয়ার পক্ষপাতি। প্রতিরোধ অর্থনীতি অর্থাৎ ইরানের বিরুদ্ধে যে যুক্তরাষ্ট্র সহ পশ্চিমা দেশগুলো অবরোধ ও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে রেখেছে তার বিকল্প হিসেবে এধরনের পাল্টা প্রতিরোধমূলক অর্থনৈতিক কার্যক্রম নেওয়ার ব্যাপারে রায়িসি বেশি আশাবাদী। রায়িসি মনে করেন প্রতিরোধ অর্থনীতির মাধ্যমেই কেবল ইরানে দারিদ্র ও বৈষম্য চিরতরে দূর করা সম্ভব। শুধু পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞাকে দোষারোপ করে তা ইরানের দুর্ভাগ্য হিসেবে বিবেচনা করার পক্ষপাতি নন তিনি। রায়িসি মনে করেন ইরানে মুদ্রাস্ফীতি বড় ধরণের সমস্যা এবং এ সমস্যা সমাধানে সংস্কারমূলক উদ্যোগ নেওয়ার আশ^াস দিয়েছেন তিনি। প্রশাসনের যেসব কর্মকর্তা সমস্যাকে শুধু দোষারোপ করেন তাদের তিনি সেই গোলকিপারের সঙ্গে তুলনা করেন যিনি ১৭টি গোল হজম করার পর বলেন তিনি এ দায়িত্বে না থাকলে আরো ৩০টি গোল খেতে হত। পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি থেকে দূরে অবস্থানে ইরানের সর্বোচ্চ নেতার অঙ্গীকারের প্রতি আস্থাভাজন রায়িসি ২০১৫ সালে এব্যাপারে যে চুক্তি হয়েছিল দেশটির তা অব্যাহত রাখবেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত